মাস্ক না পড়ায় কাটোয়া স্টেশনে যাত্রীদের থেকে ৫০০ টাকা জরিমানা নিলো আরপিএফ।

মাস্ক না পড়ায় কাটোয়া স্টেশনে যাত্রীদের থেকে ৫০০ টাকা জরিমানা নিলো আরপিএফ।

নিজস্ব প্রতিবেদন: পশ্চিমবঙ্গে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ছে করোনা ভাইরাস। বহু মানুষ এই ভাইরাসের কবলে পড়ে লড়াই করছেন মৃত্যুর সাথে। প্রশাসন সর্বদা চেষ্টা করে চলেছে মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য। কিন্তু এখনো বহু মানুষের মধ্যে সচেতনতা দেখা যাচ্ছে না। পশ্চিমবঙ্গে মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৬ লক্ষ ৬৮ হাজার ৩৫৩ জন। মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন ১০ হাজার ৬০৬ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৬ লক্ষ ৪ হাজার ৩২৯ জন।

কিন্তু এই ভয়াবহ পরিস্থিতি যে আরো কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে তা এখনো অনুধাবন করতে পারছেন না অনেকেই।মানুষের মধ্যে যে মৃত্যুর ছায়া নেমে এসেছে, সে সম্পর্কে এখনও অনেকেই সচেতন হতে পারছেন না। অনেকেই এখন রাস্তায় বেরিয়ে পড়ছেন মাস্ক ছাড়াই, শারীরিক দূরত্ব তো দূর অস্ত ।আজ কলকাতার জায়গায় জায়গায় পুলিশী অভিযান শুরু হয়েছে। এমনিতেই রেল কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করেছে যে রেল চত্বরে যদি কেউ মাস্ক না পরেন তাহলে তাদের ৫০০ টাকা জরিমানা দিতে হবে।

আরও পড়ুন-“যথেষ্ট জনসভা আর র‌্যালি হয়েছে। এবার মানুষকে বিচার করতে দেওয়া হোক।”- কোভিড প্রসঙ্গে বললো হাইকোর্ট।

আজ শ্যামপুকুর থানার পুলিশ অভিযানে বেরিয়ে বেশ কয়েকজন মাস্কবিহীন ব্যাক্তিদের গ্রেপ্তার করেছে। আজকে শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোড়ে ব্যাপক অভিযান চালিয়েছেন পুলিশকর্মীরা।আজ কাটোয়া রেল স্টেশনে অভিযান চালিয়েছে আরপিএফ। মাস্কবিহীন যাত্রী দেখলেই তাদের কাছ থেকে নেওয়া হচ্ছে ৫০০ টাকা ফাইন। এরপরে তাদেরকে মাস্ক‌ও দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও সমগ্র স্টেশন চত্বরে জনসচেতনতা প্রচার করা হচ্ছে মাইকের মাধ্যমে।

ট্রেনেও যাত্রীরা মাস্ক পরেছেন কি না তা দেখার জন্য আরপিএফ অভিযান চালাচ্ছে। ট্রেনের মধ্যেও আরপিএফের আধিকারিকরা মাইকের মাধ্যমে যাত্রীদের সচেতন করছেন। হু হু করে‌ বাড়ছে সংক্রমণ। এই পরিস্থিতিতে আজ কাটোয়া স্টেশনে অভিযান চালিয়ে অনেক মাস্ক বিহীন যাত্রীদের থেকে জরিমানা আদায় করেছে রেল পুলিশ।