নিউজরাজ্য

“ল্যাম্পপোস্টে বেঁধে পেটানোর হুমকি দিয়েছে রত্না”- পুলিশে অভিযোগ বৈশাখীর

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমানে বিতর্কের আরেক নাম শোভন বৈশাখী। এই যুগলে বর্তমানে বাংলার জনমানসে ব্যাপক বিতর্কের সূত্রপাত ঘটিয়েছেন। স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায় এবং তাঁর পুত্র কন্যার সাথে সমস্ত সম্পর্ক ত্যাগ করে বর্তমানে গোলপার্কের ফ্ল্যাটে বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় কে নিয়ে থাকেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। বেহালা পূর্বের তৃণমূল বিধায়ক রত্না চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন যে তিনি তাঁর স্বামী শোভন চট্টোপাধ্যায় কে কখনোই ডিভোর্স দেবেন না।

এদিকে ডিভোর্সের মামলা দায়ের করেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। গত ১৭ ই মে সিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায় সহ তৃণমূলের তিন হেভিওয়েট নেতা। সিবিআই গ্রেফতার করার পরেই স্বামী শোভনের পাশে দাঁড়াতে ছুটে গিয়েছিলেন রত্না চট্টোপাধ্যায়, এছাড়া শোভন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হ‌ওয়ার সময়েও শোভনের পাশে দাঁড়াতে চেয়েছিলেন রত্না চট্টোপাধ্যায়। সকলেই রত্নার স্বামীর প্রতি কর্তব্যবোধের যথেষ্ট প্রশংসা করেছিলেন।

আরও পড়ুন-“২২ বছর ধরে প্রতারিত হয়ে তবেই ডিভোর্সের মামলা দায়ের করেছি”- মন্তব্য শোভন চট্টোপাধ্যায়ের

কিন্তু মন গলেনি শোভন চট্টোপাধ্যায়ের। বারবার তিনি দূরে সরিয়ে দিয়েছেন স্ত্রী এবং পুত্র-কন্যাকে । গতকাল‌ই শোভন বলেছেন তিনি তাঁর সমস্ত স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি বৈশাখীর নামে উইল করে দিয়েছেন। এই ঘটনায় সোশ্যাল মিডিয়ায় শোভন-বৈশাখীর বিরুদ্ধে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন নেটিজেনরা।

আরও পড়ুন-স্ত্রীকে চেন্নাইয়ের যে হাসপাতালে নিয়ে যাবেন মুকুল রায়, সেখানেই স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য রয়েছেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

এবার রত্না চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে লালবাজারে অভিযোগ জানিয়েছেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি পুলিশ কমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগে জানিয়েছেন যে, “রত্না চট্টোপাধ্যায় তাঁকে এবং শোভন চট্টোপাধ্যায় কে হুমকি দিয়ে বলেছেন যে তাঁদের ল্যাম্পপোস্টে বেঁধে পেটাবে। রত্না চট্টোপাধ্যায় প্রভাব খাটিয়ে তাদের উপর জোর করছে। তার বিরুদ্ধে আগেও অভিযোগ করা হয়েছে।

কিন্তু পুলিশ তাদের অভিযোগ কানেই তোলেনি। তারা নিরাপত্তায় ভুগছেন। অবিলম্বে তাদের পুলিশী নিরাপত্তা দেওয়া হোক।” এমনটাই দাবী করেছেন বৈশাখী বন্দোপাধ্যায়।

Related Articles

Back to top button