করোনা আবহে দেশে অক্সিজেনের অভাবের পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমণ রাহুল‌ গান্ধীর।

করোনা আবহে দেশে অক্সিজেনের অভাবের পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমণ রাহুল‌ গান্ধীর।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা ভারত জুড়ে সন্ত্রাসের ভয়াবহ জাল‌ বিস্তার করেছে করোনা ভাইরাস। ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৬২ লক্ষ ৬৩ হাজার ৬৯৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষ ৮৬ হাজার ৯২৮ জনের। সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ কোটি ৩৬ লক্ষ ৪৮ হাজার ১৫৯ জন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া আজ শুক্রবারের রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ৩ লক্ষ ৩২ হাজার ৭৩০ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ৩ লক্ষ ১৪ হাজার ৮৩৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।  গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন ২ হাজার ২৬৩ জন।এদিকে সারাদেশে অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দেওয়ায় চরম সমস্যায় পড়েছেন আক্রান্তরা। দেশের বেসরকারি এবং সরকারি হাসপাতালগুলোতে কমে এসেছে অক্সিজেনের পরিমাণ। পর্যাপ্ত অক্সিজেন না পেয়ে মৃত্যু ঘটেছে অনেক করোনা আক্রান্তের ।

আরও পড়ুন-করোনা পরিস্থিতিতে ভার্চুয়াল‌ বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর। বৈঠকে যোগ দিলেন না মমতা।

দেশের এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দের নিয়ে বৈঠকে বসেছেন প্রধানমন্ত্রী । কিন্তু এই বৈঠকে যোগদান করেন নি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অক্সিজেন প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলির কর্ণধারেরাও এই বৈঠকে সরাসরি অংশগ্রহণ করেছেন। সারা দেশের এই সঙ্কটজনক পরিস্থিতিতে কিভাবে বিপদের মোকাবিলা করা যাবে এবং অক্সিজেন কিভাবে বন্টন করা যাবে তা নিয়েই এই বৈঠকে আলোচন করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

এদিকে সারা দেশের মধ্যে অক্সিজেনের অপ্রতুলতা নিয়ে সরাসরি কেন্দ্রীয় সরকারকে দোষারোপ করেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। তিনি টুইটারে সরব হয়ে লিখেছেন,”করোনার জন্য শরীরে অক্সিজেনের লেভেল খুবই কমে যায়। ভারতে পর্যাপ্ত অক্সিজেন এবং আইসিইউতে বেড না পওয়ার দরুন বহু মানুষের মৃত্যু ঘটছে। এর দায় নিতে হবে কেন্দ্রীয় সরকারকেই। কেন্দ্রীয় সরকারের ভ্যাকসিন নীতিটাও অনেকটা নোটবন্দীর মতোই। আগের মতই মানুষ লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে প্রাণ হারাবেন আর কিছু শিল্পপতিরা এর দ্বারা মুনাফা অর্জন করবেন।”