নিউজদেশপলিটিক্স

কৃষি আইনের অভিনব প্রতিবাদ জানিয়ে ট্রাক্টর চালিয়ে সংসদে গেলেন রাহুল

নিজস্ব প্রতিবেদন: কৃষক বিদ্রোহকে কেন্দ্র করে ক্রমাগত চাপের মুখে পড়ে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। বিরোধী দলগুলি বারবার সোচ্চার হচ্ছে এই কৃষক বিদ্রোহের ইস্যুকে কেন্দ্র করে।এমনিতেই কৃষক সংগঠনগুলির দিনের-পর-দিন তাদের আন্দোলন আরও জোরালো করে চলেছে। তিনটি কৃষি বিলকে প্রত্যাহার করার দাবিতে তারা গত ২৬ শে জানুয়ারি লালকেল্লায় যথেষ্ট বিক্ষোভ দেখিয়েছিলো।

তাদের এই আন্দোলনকে হাতিয়ার করে কেন্দ্রীয় সরকারের ওপর যথেষ্ট চাপ সৃষ্টি করে চলেছে মোদি বিরোধী সংগঠন গুলি। এদিকে কয়েকদিন আগেই দিল্লির যন্তর মন্তরে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখিয়েছে বিদ্রোহী কৃষকরা। ‌ দিল্লি সীমান্তে আন্দোলনরত কৃষক সংগঠনগুলির হুমকি দিয়ে জানিয়েছে যে, আগামী ১৫ ই আগস্টের দিন তারা বিজেপির নেতানেত্রীদের ভারতের জাতীয় পতাকা তুলতে দেবে না। সেই সাথে তারা হুমকি দিয়েছে যে হরিয়ানায় ব্যাপক আন্দোলন গড়ে তুলবে তারা।

আরও পড়ুন-“স্বাধীনতা দিবসের দিন বিজেপি নেতা মন্ত্রীদের পতাকা তুলতে দেব না”- হুমকি দিল কৃষক সংগঠনগুলি

স্বাধীনতা দিবসের দিন ট্রাক্টর প্যারেড বের করে বিজেপি নেতাদের কালো পতাকা দেখানো হবে এমনটাই জানিয়েছে কৃষক সংগঠনগুলি।এই আবহের মধ্যে অভিনব প্রতিবাদ জানালেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। ‌ তিনটি কৃষি আইন বাতিল করার দাবিতে ট্রাক্টর চালিয়ে কৃষকদের সাথে সংসদে গেলেন রাহুল গান্ধী। কংগ্রেসের সমস্ত সাংসদরা তার সাথে এই বিক্ষোভের অংশগ্রহণ করেছিলেন।

রাহুল গান্ধী এই বিক্ষোভ থেকে বলেছেন,”আমি সংসদে কৃষকদের যন্ত্রণার কথা তুলে ধরছি। এই অত্যাচারী সরকার কৃষকদের দাবীদাওয়ায় কর্ণপাত করছে না। এই কালো আইন অবিলম্বে সরকারকে প্রত্যাহার করতে হবে। সরকার কৃষকদের বিষয়ে সংসদে কোনো আলোচনা করতে বাধা দিচ্ছে।

আরও পড়ুন-“তৃণমূলের সাথে জোট গঠন করলে রাজ্যে কংগ্রেসের সাইনবোর্ডও দেখা যাবে না।”- বললেন কমরেড বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য।

‌ দেশের মধ্যে মাত্র ২ – ৩ জন বড়ো ব্যবসায়ীকে খুশী করার জন্য এই কালা আইন বানানো হয়েছে।”এমনিতেই সংসদের বাদল অধিবেশনে তিনটি কৃষি আইনের বিরোধিতা করে যথেষ্ট সরব হয়েছে কংগ্রেস সহ বিজেপির অন্যান্য বিরোধী দলগুলি। তাই আজ অভিনব ভাবে কৃষি আইনের বিরোধিতায় শামিল হলেন রাহুল গান্ধী।

Related Articles

Back to top button