“দয়া করে কৃষি এবং গণতন্ত্র রক্ষা করুন।”- রাষ্ট্রপতিকে স্মারকলিপি পাঠাতে চলেছেন বিক্ষুব্ধ কৃষকরা।

“দয়া করে কৃষি এবং গণতন্ত্র রক্ষা করুন।”- রাষ্ট্রপতিকে স্মারকলিপি পাঠাতে চলেছেন বিক্ষুব্ধ কৃষকরা।

নিজস্ব প্রতিবেদন: এবার রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে আবেদন করতে চলেছে সংযুক্ত কিষান মোর্চা। কৃষক আন্দোলনের সাত মাস অতিক্রান্ত হয়েছে। কিন্তু এখনো কৃষকদের দাবি পূরণ করেনি কেন্দ্রীয় সরকার। ‌ সেই মর্মে এবার রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের হস্তক্ষেপ প্রার্থনা করছেন কৃষকরা।

এবার রামনাথ কোবিন্দের কাছে একটি স্মারকলিপি পাঠাতে চলেছে সংযুক্ত কৃষক মোর্চা। এই স্মারকলিপিতে বলা হবে , “ভারত বর্ষ যখন স্বাধীনতা লাভ করেছিল তখন আমরা কৃষকরা জমিতে ফসল ফলিয়ে ৩৩ কোটি মানুষের খাবার জোগাড় করতাম। বর্তমানে জমির পরিমাণ কমেছে কিন্তু আমরা ১৪০ কোটি মানুষের খাবার জোগাড় করে চলেছি। কৃষিতে এই ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও আমরা যথেষ্ট পরিমাণ বসলের উৎপাদন করতে সক্ষম হয়েছি।

আরও পড়ুন-“স্টুডেন্টস্ ক্রেডিট কার্ড প্রকল্পে ছাড়পত্র দিয়েছে মন্ত্রীসভা।”- বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কিন্তু আমরা দেশকে এই নিঃস্বার্থভাবে পরিষেবা দেওয়ার উপহার হিসাবে ভারত সরকার তিনটি কৃষক বিরোধী আইন বলপূর্বক কৃষকদের উপর লাগু করেছে। এই আইন কৃষকদের কৃষিকে ধ্বংস করবে, পাশাপাশি এই কালো আইন কৃষকদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে নষ্ট করবে। কৃষকদের হাত থেকে এই ফসল ছিনিয়ে নিয়ে তুলে দেওয়া হবে বড় বড় কোম্পানির হাতে। অবিলম্বে এই অগণতান্ত্রিক আইন বাতিল করার জন্য আপনি কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করুন।

আরও পড়ুন-ভয়াবহ বিস্ফোরণ পাকিস্তানে হাফিজ স‌ঈদের বাড়ির সামনে। ‘হাত রয়েছে ভারতের’- অভিযোগ পাকিস্তানের।

এই আইন গুলিকে অর্ডিন্যান্স আকারে কৃষকদের উপরে লাগু করা হয়েছে।গত ৩০ বছরে বিভিন্ন কেন্দ্রীয় ভ্রান্ত নীতির পরিণামস্বরূপ প্রায় ৪০ লক্ষ কৃষক নিজেদের জীবন শেষ করে দিয়েছেন।”বিভিন্ন রাজ্যের রাজ্যপাল এবং বিভিন্ন চ্যানেলের মাধ্যমে এই স্মারকলিপি রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে সংযুক্ত কিষান মোর্চা । এই স্মারকলিপিতে তিনটি কৃষি আইন কে সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক আখ্যা দিয়েছেন কৃষকরা।