নিউজপলিটিক্স

“বাংলার মানুষ খেলবে, শুভেন্দু সাইড লাইনে বসে দেখবে”- কটাক্ষ করলেন ফিরহাদ হাকিম

নিজস্ব প্রতিবেদন: আগামী ১৬ ই আগস্ট রাজ্যজুড়ে খেলা হবে দিবস পালন করতে চলেছে বর্তমান রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে রাজ্যের সমস্ত জেলা, ব্লক এবং ক্লাবগুলোতে ওইদিন বেশকিছু কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। এই দিন রাজ্যের ক্লাবগুলোকে ফুটবল প্রদান করতে চলেছে রাজ্য সরকার। এছাড়াও বিভিন্ন ক্লাবে ক্লাবে ফুটবল খেলা সহ আরো বেশ কিছু খেলার আয়োজন করা হয়েছে। এই উপলক্ষে গতকাল কলকাতা পৌরসভার পক্ষ থেকে ক্লাবগুলোকে ফুটবল বিতরণ করেছেন পুরসভার মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য দেবাশীষ কুমার।

কলকাতা পৌরসভার অন্তর্গত ১৪৪ টি ওয়ার্ডের কো-অর্ডিনেটর এবং চেয়ারম্যানদের হাতে এই ফুটবল গুলি তুলে দেওয়া হয়েছে যা বিভিন্ন ক্লাব কে দেওয়া হবে। এই ফুটবল গুলি দিয়ে বিভিন্ন ক্লাব ঐদিন ফুটবল খেলায় অংশ নেবে বলে জানা গিয়েছে । যে সমস্ত পার্ক গুলি বহুদিন ধরে বন্ধ রয়েছে সেগুলি স্যানিটাইজ করে ওই দিন খোলা হবে। ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন তিনি নবাব আলী পার্কে খেলবেন। আগামী ১৬ ই আগস্ট খেলা হবে দিবসের এই কর্মসূচি ঘিরে যথেষ্ট উৎসাহিত হয়ে রয়েছে আপামর তৃণমূল কর্মীরা।

আরও পড়ুন – বিজেপির মহিলা মোর্চার কর্মসূচি ঘিরে ব্যাপক ধুন্ধুমার কলকাতার ভবানী ভবন, সিমলা স্ট্রিটে।

এদিকে করোনা আবহে এই খেলা হবে দিবস পালনে আপত্তি জানিয়েছে বিজেপি। এছাড়াও খেলা হবে দিবসের তারিখ পরিবর্তন করতে চেয়ে বারবার রাজ্য সরকারের কাছে দাবি জানাচ্ছে বিজেপি। বিজেপির নেতারা বলেছেন যে, “দি গ্রেট ক্যালকাটা কিলিং এর দিনেই খেলা হবে দিবস পালন করতে চাইছে তৃণমূল। এর থেকে পরিষ্কার তারা সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে ১৬ ই আগস্ট দিনটিকে বেছে নিয়েছে।”

এবার শুভেন্দু অধিকারী কে এই প্রসঙ্গে কটাক্ষ করেছেন ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেছেন, “গত ২ রা মে খেলায় হেরে গিয়েছে বিজেপি। সেই বিষয়টি এখনও হজম করে উঠতে পারেনি শুভেন্দু অধিকারী। বাংলার ভালো-মন্দ বোঝার দায়িত্ব বাংলাবাসী তুলে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপরে। এখানে শুভেন্দু অধিকারীর কিছু বলার নেই। বেশি কথা না বলে তার সাইড লাইনে বসে খেলা দেখা উচিৎ। এই নতুন দল বদল করেছে বলে, বড়ো বেশি লাফালাফি শুরু করেছে।”

Related Articles

Back to top button