নিউজআন্তর্জাতিকদেশ

ভারতকে করোনা কালে সাহায্যের জন্য কোটি কোটি টাকা চাঁদা জোগাড় করে পাকিস্তানি জঙ্গি ও সেনার হাতে তুলে দিয়েছে পাকিস্তানের এনজিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনা কালে ভারতকে সাহায্য করার নামে আমেরিকায় কাজ করা পাকিস্তানের চ্যারিটি সংগঠন কোটি কোটি টাকা চাঁদা জোগাড় করেছে কিন্তু সেই টাকা তারা ভারতকে সাহায্য না করে জঙ্গিদের এবং পাকিস্তানের সেনার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ‘DisinfoLab’ ‘ তাদের রিপোর্টে জানিয়েছে যে, ‘হেল্প ইন্ডিয়া ব্রিথ’ অভিযান চালিয়ে করোনাকালে ভারতকে সাহায্য করার নামে পাকিস্তানের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ইমানা’ আর্থিক সাহায্যের অনুরোধ রেখেছিলো অন্যান্য দেশ তথা মানুষজনের কাছে। কিন্তু DisinfoLab জানিয়েছে যে ভারতের ত্রাণ পাঠানোর জন্য যে টাকা তারা সংগ্রহ করেছে সেই টাকা তারা পাকিস্তানি সেনা এবং জঙ্গির হাতে তুলে দিয়েছে।

এমনিতেই বিভিন্ন দেশ ভারতকে অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর সহ ভেন্টিলেটর, ওষুধ, ভ্যাকসিন দিমে সাহায্য করেছে। পাকিস্তানের ওই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন গত ২৭ শে এপ্রিল ইনস্টাগ্রামে একটি অভিযান শুরু করেছিল ভারতকে সাহায্যের জন্য। তারা ওই অভিযানের দ্বারা ১.৮ কোটি ডলার সংগ্রহ করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে নেমেছিল।

আরও পড়ুন-ভারত ইজরায়েলের সম্পর্ক আরো মজবুত হতে চলেছে। নরেন্দ্র মোদীর সাথে কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করলেন ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট।

কিন্তু এখনো পর্যন্ত তারা কত টাকা চাঁদা হিসেবে জোগাড় করেছে এবং সেই টাকা তারা কোন খাতে খরচ করেছে সেই সম্পর্কে কোন তথ্য পেশ করেনি।DisinfoLab তাদের রিপোর্টে দাবি করেছে যে পাকিস্তানি বেশ কয়েকটি সংগঠন এইভাবে চরম দুর্নীতি করে চলেছে। ভারতকে সাহায্য করার নামে তারা ভারতবিরোধী কাজকর্মে এই টাকা ফান্ডিং করছে।

আরও পড়ুন-মসজিদের মাইকের আওয়াজে নিয়ন্ত্রণ জারি করল সৌদি আরব। প্রতিবাদে সরব একাংশ দেশবাসী

ভারতকে সাহায্য করার জন্য পাকিস্তানি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আমেরিকার মাটিতে কর্মরত রয়েছে। এই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সভাপতি হলেন ডঃ ইসমাইল মেহের। কিন্তু এই সংগঠনের নির্দিষ্ট কোনো অফিস এবং ব্র্যান্ড না থাকায় সরকারিভাবে তাদেরকে আটকানো সম্ভব হচ্ছে না। DisinfoLab দাবি করেছে যে পাকিস্তানের বেশিরভাগ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো এই দুর্নীতি চালিয়ে যাচ্ছে।

Related Articles

Back to top button