নিউজপলিটিক্সরাজ্য

মহার্ঘ ভাতা ইস্যুতে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

নিজস্ব প্রতিবেদন: পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক পরিবেশে বর্তমানে যথেষ্ট উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। বারবার একে অপরের দিকে কড়া আক্রমণ শানিয়ে চলেছে তৃণমূল এবং বিজেপি। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী বারবার বিভিন্ন ইস্যুতে রাজ্য সরকার তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়ে চলেছেন।

এবার মহার্ঘভাতা ইস্যুতে গতকাল রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।তিনি সরকারি কর্মীদের বার্তা দিয়েছেন যে মহার্ঘভাতা ইস্যুতে তিনি তাঁদের পাশে দাঁড়াবেন ।গতকাল কলকাতার প্রেস ক্লাবে একটি সাংবাদিক বৈঠকে শুভেন্দু অধিকারী মহার্ঘভাতা ইস্যুতে কড়া আক্রমণ শানিয়েছেন রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন-করোনা পরিস্থিতিতে জাতি ধর্মের উল্লেখ করে ৬১ জন বন্দীকে মুক্তি রাজ্য সরকারের। সূত্রপাত তুমুল বিতর্কের।

তিনি সাংবাদিক বৈঠকে বলেছেন,”আজকে এই সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে আমি বিরোধী দলনেতা হিসেবে রাজ্য সরকারের কাছে অবিলম্বে দাবি করছি মহার্ঘ ভাতা ইস্যুতে আপনাদের অতি শীঘ্রই সমস্যার সমাধান করা উচিৎ।”এছাড়াও লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প বিষয়ে রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ করে শুভেন্দু অধিকারী বলেছেন,”আপনারা সরকারি কোষাগার থেকে ১৫ হাজার কোটি টাকা খরচ করে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প করবেন।আর যখনই সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘভাতা চাইতে যাচ্ছেন তখন আপনি বলছেন কেউ কেউ করবেন না।

আরও পড়ুন-পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে দিল্লির রাজপথে সাইকেল র‌্যালি করলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী।

বর্তমানে ৪ লক্ষ ৫৪ হাজার কোটি টাকা ঋণ হয়েছে। আমি এখন আপনাকে ঋণ পরিশোধ করতে বলছিনা, তবে আপনি দিনের পর দিন ঋণ নিয়ে বিভিন্ন খেলা-মেলা এটা বিতরণ, ওটা বিতরণ করে যেভাবে সমগ্র প্রশাসন টাকে ঋণে জর্জরিত করছেন, সরকারি কর্মচারীরা সমগ্র প্রশাসন টাকে চালিয়ে যাচ্ছেন। তাই আমি সর্বদা এই মহার্ঘভাতা বিষয়ে কর্মচারীদের পাশে রয়েছি। আমি আশা রাখবো আগামী দিনে কর্মচারীরা সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হবেন।”

Related Articles

Back to top button