নিউজপলিটিক্সরাজ্য

তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে ফোন করলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমানে বাংলার রাজনৈতিক পটভূমিতে কান পাতলেই শুধুমাত্র শোনা যাচ্ছে বিজেপি-তৃণমূলের দ্বৈরথ। রাজ্যে ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস নিয়ে বারবার তৃণমূলের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদানের পরেই তিনি বিভিন্ন ইস্যুকে কেন্দ্র করে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি আক্রমণ শানিয়ে আসছেন। এ হেন শুভেন্দু অধিকারী এবার ফোন করেছিলেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় কে।

জানা গেছে গতকাল বৃহস্পতিবার পার্থ চট্টোপাধ্যায় কে ফোন করে অনেকক্ষণ ধরে কথা বলেছেন শুভেন্দু অধিকারী।পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন যে, “আজ বিধানসভায় কমিটি গঠন নিয়ে শুভেন্দু বাবুর সাথে কথা হয়েছে। বিধানসভায় বর্তমানে রয়েছে মোট ৪১ টি কমিটি। এই কমিটির মধ্যে তৃণমূল কটা পাবে আর বিজেপি কটা পাবে এই বিষয় নিয়েই শুভেন্দু অধিকারীর সাথে ফোনে কথাবার্তা হয়েছে।”

আরও পড়ুন-“মুখ্যমন্ত্রী ন্যায় চাইছেন ঠিক আছে, কিন্তু নন্দীগ্রামের রায় সঠিক‌ই”- মন্তব্য দিলীপ ঘোষের।

জানা গিয়েছে যে বিধানসভায় ৪১ টি কমিটির মধ্যে বিজেপিকে তৃণমূল ছেড়ে দিতে রাজি হয়েছে ৯ টি থেকে ১১ টি কমিটি। কিন্তু এত কম সংখ্যক কমিটি নিতে যথেষ্ট আপত্তি জানিয়েছে বিজেপি নেতৃত্ব। বিধানসভায় ১৫ টি কমিটি দেওয়ার দাবী জানিয়ে শুভেন্দু অধিকারী পার্থ চট্টোপাধ্যায় কে ফোন করেছিলেন। কিন্তু পার্থ চট্টোপাধ্যায় শুভেন্দু এই দাবিতে কিছুতেই রাজি হননি বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন-বিজেপির দখলে থাকা মালদা জেলা পরিষদে অনাস্থা প্রস্তাব আনল তৃণমূল কংগ্রেস।

এখনো এই বিষয়টি সম্পর্কে পর্যালোচনা চলছে।বিধানসভায় কমিটি গঠন হয়নি বলেই এখনো পর্যন্ত বিধায়কদের ভাতা প্রদান করা হয়নি। তাই বিজেপি শীঘ্রই এই কমিটির মধ্যে ঢোকার চেষ্টা চালাচ্ছে। পার্থ চট্টোপাধ্যায় যেহেতু পরিষদীয় মন্ত্রী তাই তাঁকে ফোন করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী।

Related Articles

Back to top button