অফবিটনিউজ

যেকোনো সময় চিকিৎসার জন্য পিএফ থেকে মিলবে অগ্রিম এক লক্ষ টাকা।

নিজস্ব প্রতিবেদন: অনেক সময় দেখা যায় আপৎকালীন চিকিৎসা দরুন মানুষজনের হাতে টাকা পয়সার ঘাটতি থাকে যার জন্য সঙ্কটজনক মুহূর্তে চিকিৎসা করাতে গেলে টাকা পয়সা জোগাড় করা মুশকিল হয়ে পড়ে অনেকের পক্ষেই। অনেক সময় দেখা গিয়েছে টাকা-পয়সার অপ্রতুলতার দরুন রোগীর চিকিৎসায় ভাটা পড়ে গিয়েছে যার জন্য জীবন সংশয় হয়েছে রোগীর। কিন্তু এবার এই দিন শেষ হতে চলেছে। জানা গিয়েছে এবার থেকে নিজের চিকিৎসার জন্য যেকোনো সময় অগ্রিম এক লক্ষ টাকা তুলতে পারা যাবে নিজের পিএফ ফান্ড থেকে ।

এর জন্য হাসপাতালে বিলের পরিমান দেওয়া বা অন্যান্য তথ্য দেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই বলে জানা গিয়েছে। এই তথ্য জানিয়েছে ইপিএফ। একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে ইপিএফ জানিয়েছে যে, অনেক সময় আপৎকালীন পরিস্থিতিতে রোগীকে হাস্পাতালে ভর্তি করতে গেলে টাকা-পয়সার অপ্রতুলতা দেখা যায়, সাথে সাথে টাকার যোগাড় করা সম্ভব হয়ে ওঠেনা রোগীর আত্মীয় স্বজনদের।বিশেষ করে এই ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতি তে দেখা গিয়েছে টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে সক্ষম হননি অনেকেই।

আরও পড়ুন-হাওড়া, শিয়ালদাতে বাড়ানো হল স্টাফ স্পেশাল ট্রেনের সংখ্যা।

আসলে অনেক ক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে সংকটজনক পরিস্থিতির সাথে সাথে উপায় থাকলেও সেই মুহূর্তে টাকার যোগাড় করতে পারেননি রোগীর নিকট আত্মীয়রা। যার জন্য এবার ইপিএফ একটি নির্দেশিকায় জানিয়েছে যে ,সরকার নথিভূক্ত কোন হাসপাতালে যদি কোনো রোগী ভর্তি হয় তাহলে সর্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকা অগ্রিম হিসেবে পিএফ থেকে পাওয়া যেতে পারে । যদি ওই রোগী বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয় তাহলে হাসপাতালে কাউন্টারে রোগীর পরিবারকে অবশ্যই পর্যালোচনা করতে হবে যাতে পরবর্তীকালে তারা রিএম্বাসমেন্ট পেতে পারেন ।

আরও পড়ুন-এবার থেকে শনিবার এবং রবিবারেও পাওয়া যাবে বেতন এবং পেনশন। জানুন বিস্তারিত।

আগাম অর্থের রশিদ জমা দিয়ে বকেয়া অর্থের পরিমাণ যদি হাসপাতালে জানানো যায় তাহলে এই পিএফ অ্যাকাউন্ট থেকে আরও অতিরিক্ত টাকা পাওয়া যাবে। এরপরে হাসপাতাল থেকে রোগী ছাড়া পাওয়ার অন্তত ৪৫ দিনের মাথায় ইপিএফ‌ও তে সমস্ত বিল জমা দিয়ে দিতে হবে। এই নির্দেশিকার ফলে আপদকালীন পরিস্থিতি বহু মানুষের চিকিৎসায় যথেষ্ট সুরাহা হবে বলে মনে করছেন অনেকেই।

Related Articles

Back to top button