টেক নিউজদেশনিউজ

একদিকে বাংলায় ভ্যাকসিনের অপ্রতুলতা, এদিকে প্রধানমন্ত্রীর ফ্রি ভ্যাকসিন বিজ্ঞাপনে খরচ হলো প্রায় ২১০ কোটি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: একদিকে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ভ্যাকসিনের অপ্রতুলতা রীতিমতো লক্ষ্যনীয়, আবার এর‌ই মাঝে দেশজুড়ে প্রধানমন্ত্রীর ফ্রি ভ্যাকসিনের প্রচারে খরচ হয়েছে রীতিমতো বিরাট অঙ্কের টাকা। সারা দেশব্যাপী ভ্যাকসিনের যোগান যথেষ্ট অপ্রতুল। বিশেষ করে বাংলার মাটিতে ভ্যাকসিনের যোগানের বিরাট অপ্রতুলতা দেখা দিয়েছে।

এরই মাঝে জানা গেছে প্রধানমন্ত্রীর ছবি দিয়ে সরকারি বিজ্ঞাপনের প্রচারে এখনো পর্যন্ত দেশের কোষাগার থেকে খরচ হয়ে গিয়েছে প্রায় ২১০ কোটি টাকা।এই বছরের শুরু থেকেই ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হওয়ার পর গত জুন মাস পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি দিয়ে ফ্রি ভ্যাকসিনের প্রচারে এই বিপুল অঙ্কের টাকা খরচ হয়ে গিয়েছে।স্বাস্থ্যমন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী ডাঃ ভারতী প্রবীণ সংসদে তথ্য দিয়েছেন যে এখনো পর্যন্ত সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে টিভি ,রেডিও, নিউজ পেপার, সোশ্যাল মিডিয়ায় ফ্রি ভ্যাকসিনের প্রচারে খরচ হয়েছে মোট ২০৯ কোটি ৩ লক্ষ টাকা।

আরও পড়ুন-আজ বিশ্ব আদিবাসী দিবস উপলক্ষে ঝাড়গ্রাম সফরে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

গত ২১ শে জুন কেন্দ্রীয় সরকার ঘোষণা করেছিল যে, সমস্ত দেশবাসীকে সম্পূর্ণ ফ্রি’তে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। কেন্দ্রীয় সরকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল খুব শীঘ্রই সমগ্র দেশের মানুষকে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।কিন্তু এখনও পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গ সহ অন্যান্য রাজ্যগুলিতে যথেষ্ট পরিমাণে ভ্যাকসিন সরবরাহ করা হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। ‌ বিশেষ করে অন্যতম জনবহুল রাজ্য পশ্চিমবঙ্গ যেখানে প্রায় ১০ কোটির‌ও বেশি মানুষজন বসবাস করেন সেখানে এখনো পর্যন্ত ৭০% মানুষ টীকা থেকে বঞ্চিত রয়েছেন।

আরও পড়ুন-স্বাধীনতা দিবসের আগেই জাহাজের কন্টেনার দিয়ে ঢাকা হল লালকেল্লা প্রাঙ্গন

গত ২ রা আগস্টের পরিসংখ্যান অনুযায়ী এখনো পর্যন্ত রাজ্যে টিকাকরণ হয়েছে মোট ৩ কোটি ৬৫ হাজার ৮৪৫ জনের। অর্থাৎ একদিকে ২১০ কোটি খরচ করে প্রধানমন্ত্রীর মুখের ছবি দিয়ে ফ্রি ভ্যাকসিনের প্রচার করা হচ্ছে আবার অপরদিকে সারা দেশজুড়ে ভ্যাকসিনের আকাল রীতিমতো লক্ষণীয়।

Related Articles

Back to top button