নিউজ

ভোটের পরের দিন নানুরের বন্দর গ্রামে ব্যাপক বোমাবাজি রাতভর।

নিজস্ব প্রতিবেদন: গতকাল রাজ্যে ৩৫ টি আসনে ভোটগ্রহণ হয়েছে। বীরভূমের ১১ টি আসনে, কলকাতার ৭ টি আসনে, মুর্শিদাবাদের ১১ টি আসনে, এবং মালদার ৬ টি আসনে ভোটগ্রহণ হয়েছে। গতকাল সকাল থেকেই বিভিন্ন জেলায় জেলায় টুকরো টুকরো অশান্তির ছবির সামনে এসেছে। কলকাতার মহাজাতি সদনের সামনে বোমাবাজির ঘটনা ঘটেছে, গতকাল বীরভূমে দুটি জায়গায় উদ্ধার হয়েছে তাজা বোমা।

এছাড়াও এন্টালিতে বিজেপি অভিযোগ করেছে যে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী ইভিএম মেশিনের পাশে দাঁড়িয়ে মানুষকে তৃণমূলে ভোট দিতে জোর করছে। জায়গায় জায়গায় বিক্ষিপ্ত অশান্তির খবর মিলেছে। এছাড়াও আলিনগরে বেশ কয়েকটি তীর উদ্ধার করেছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। বিজেপি অভিযোগ করেছে যে এই তীর বিজেপির দিকে ছোঁড়ার জন্য জড়ো করছিলো। কিন্তু তৃণমূল এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

আরও পড়ুন-করোনা মোকাবিলায় আজ মন্ত্রিগোষ্ঠীর সঙ্গে বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর

এদিকে মানিকতলায় বিজেপি প্রার্থী কল্যাণ চৌবে কে ঘিরে বিক্ষোভ দেখিয়েছে তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা।রাজ্যের জায়গায় জায়গায় বিক্ষিপ্ত ঝামেলা অশান্তি খবর পাওয়া গিয়েছে । ধরমপুরে বিজেপি প্রার্থী কে বাঁশ নিয়ে তাড়া করে তার গাড়ির কাচ ভাঙচুর করার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে।ভোট-পরবর্তী হিংসা অব্যাহত রয়েছে বীরভূমের মাটিতে। বীরভূমের অতি স্পর্শকাতর জায়গা নানুরের বন্দরগ্রামে কাল রাতভর বোমাবাজির ঘটনা ঘটেছে।

ভোট মিটতেই তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বন্দরগ্রামে বিজেপি প্রার্থীর বাড়ি লক্ষ্য করে বোমা ছুঁড়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। রাতভর বোমা পড়েছে বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসীরা। এই ঘটনায় এলাকায় রীতিমতো আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

Related Articles

Back to top button