“বালি লুঠ করায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।”- ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী

“বালি লুঠ করায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।”- ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন : বালি পাচার রুখতে কড়া ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে রাজ্য সরকার। প্রায়শই দেখা যায় বিভিন্ন নদী তীরবর্তী এলাকা থেকে অবৈধভাবে বালি পাচারের ঘটনা ঘটতে। পরিবেশবিদরা এবং অন্যান্য মানুষজন বারবার প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানিয়েছে অবৈধভাবে বালি পাচার রুখতে অবিলম্বে কড়া ব্যবস্থা গ্রহণ করুক রাজ্য সরকার। সেইমতো মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় আসীন হওয়ার পরেই রাজ্যের মাটিতে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা অবৈধ বালি পাচার রোধ করার জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।

মুখ্যমন্ত্রী গতকাল বলেছেন,”আমি স্ট্যান্ড মাইনিং নীতি গঠন করেছি। অনেক সময় বিভিন্ন কারণবশত স্থানীয় মাফিয়াদের আমরা শায়েস্তা করতে পারছিনা। এমনিতেই বালি থেকে শুরু করে কয়লা, পাথর এগুলি হল রাজ্যের সম্পদ যা জেলাশাসক নিলাম করে থাকেন ‌। কিন্তু অসাধুরা ৪ গুণ পরিমাণে এ‌ই প্রাকৃতিক সম্পদকে নিয়ে পালিয়ে যায়।

আরও পড়ুন-“শান্তনুকে অশ্রাব্য গালিগালাজ করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ পুরী”- দাবি করলেন তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়

যার দরুণ প্রাকৃতিক পরিবেশ নষ্ট হ‌ওয়ার পাশাপাশি রাজ্য সরকারের আয় কমে গিয়েছে।”এদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর‌ও বলেছেন, “বর্তমানে আমরা মিনারেল মাইনিং কর্পোরেশনকে অনেকটাই দৃঢ়ভাবে গঠন করেছি। আগেই এই সমস্ত সম্পদ এর নিলাম করতেন জেলাশাসক রা। ‌ এবার মিনারেল মাইনিং কর্পোরেশনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মুখ্য সচিব এবং অর্থ সচিব কে।

আরও পড়ুন-মদন মিত্র কথা রাখলেন। ইস্টবেঙ্গলকে করলেন এক মাসের বেতন সাহায্য

রাজ্যের সম্পদ কিছুতেই চুরি করা যাবে না। কয়লা হল কেন্দ্রের সম্পদ, এই বিষয়টি কেন্দ্রীয় সরকারের অবশ্যই দেখা উচিৎ। সিআইএসএফ সম্পূর্ণ ব্যাপারটি নিয়ে পর্যবেক্ষণ করলে সব থেকে ভালো হয়।