“নিজের বৈবাহিক জীবন নিয়ে ভুল তথ্য দিয়েছেন সাংসদ নুসরত জাহান”- বিধানসভার স্পীকারের কাছে অভিযোগ দায়ের করলেন বিজেপি সাংসদ।

“নিজের বৈবাহিক জীবন নিয়ে ভুল তথ্য দিয়েছেন সাংসদ নুসরত জাহান”- বিধানসভার স্পীকারের কাছে অভিযোগ দায়ের করলেন বিজেপি সাংসদ।

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাংলা রাজ্য রাজনীতিতে নতুন সংযোজন নুসরতের বৈবাহিক বিষয়। বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ নুসরতের সাথে তাঁর স্বামী নিখিল জৈনের বিবাহ কতটা বৈধ আর অবৈধ এই নিয়ে শুরু হয়েছে তরজা। নুসরতের স্বামী নিকিল জৈন বলেছেন যে, তিনি অনেকদিন হল নুসরতের সাথে থাকেন না, এমনকি তিনি এটাও বলেছেন যে নুসরতের সন্তানের বাবা তিনি নন। এছাড়াও নিখিল বলেছেন যে, ১০ ই সেপ্টেম্বর নুসরত মা হবেন।

কিন্তু নিজের মাতৃত্ব প্রসঙ্গে এখনো কোনো মন্তব্য করেননি নুসরত। তবে তিনি নিখিলের সাথে বিবাহের বিষয়ে মুখ খুলেছেন, নুসরত বলেছেন, “আমার সাথে নিখিলের তুরস্কে বিয়ে হয়েছিলো। তুরস্কের বিবাহ নিয়ম অনুযায়ী আমাদের এই বিয়ে অবৈধ। ভারতীয় বিবাহ আইনানুযায়ী এই বিয়েটা বৈধ নয়।

আরও পড়ুন-নারদ মামলায় হলকনামা গ্রহণ করল না হাইকোর্ট। চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ মুখ্যমন্ত্রী।

এটাকে লিভ-ইন রিলেশনশিপ বলা যেতে পারে। তাই এখানে ডিভোর্সের কোনো প্রসঙ্গ উত্থাপিত হ‌ওয়ার কথা নয়। বহু আগেই আমি বিচ্ছেদ করে দিয়েছি। আইনের চোখে আমাদের বিয়েটা বিয়ে নয়।

এটা লিভ ইন রিলেশনশিপ।”কিন্তু নিখিল আগেই বিবাহবিচ্ছেদের মামলা দায়ের করেছেন।এর পরিপ্রেক্ষিতে আইনজীবী জয়ন্তনারায়ণ চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, “যারা নিজেদের সেলিব্রিটি বলে দাবি করেন তারা এই ধরণের বেআইনি এবং অনৈতিক কাজ কি করে করে থাকেন ? উনি বলেছেন তুর্কি বিবাহ মতে উনার বিয়ে হয়েছে যা আমাদের দেশে একদমই অবৈধ।

আরও পড়ুন-উত্তরবঙ্গ সফরে যাওয়া রাজ্যপালকে কালো পতাকা দেখালো তৃণমূল কর্মীরা

তিনি যখন জানতেন যে তার বিবাহ বৈধ নয় তাহলে হলফনামায় বিবাহিতা কিভাবে লিখলেন? নির্বাচনে তিনি হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দেওয়ার ফলে তিনি দোষী সাব্যস্ত হতে পারেন। যার ফলে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে।”এই আবহে বসিরহাটের সাংসদ নুসরত জাহানের বিরুদ্ধে বিবাহ নিয়ে লোকসভায় ভুল তথ্য দেওয়ার অভিযোগে বিধানসভার স্পীকারের দ্বারস্থ হয়েছেন উত্তরপ্রদেশের বদায়ুনের বিজেপি সাংসদ সংঘমিত্রা মৌর্য।

আরও পড়ুন-“৩০ দিনের মধ্যে উত্তর না দিলে নেওয়া হবে কড়া পদক্ষেপ।”- আবার আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি কেন্দ্রের। নিন্দা তৃণমূলের।

তিনি একটি চিঠির সাথে নুসরতের লোকসভা প্রোফাইল জুড়ে দিয়ে অভিযোগ করেছেন,”লোকসভায় যখন শপথ গ্রহণ করেছিলেন তখন নুসরত নিজের নাম উল্লেখ করেছিলেন নুসরত জাহান রুহি জৈন। শাড়ি, শাঁখা সিঁদুর পরে শপথ নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু এখন তিনি যা বলছেন তা আগের ঘটনার সাথে মিল খাচ্ছে না। তিনি লোকসভায় সম্পূর্ণ ভুল তথ্য দিয়েছেন, এর ফলে তাঁর অবিলম্বে শাস্তি হ‌ওয়া উচিৎ।

তিনি যা করেছেন তা আইনবিরুদ্ধ।”