কলকাতা হাইকোর্টে মিঠুন মামলার শুনানি হতে চলেছে আগামী শুক্রবার

কলকাতা হাইকোর্টে মিঠুন মামলার শুনানি হতে চলেছে আগামী শুক্রবার

নিজস্ব প্রতিবেদন: মিঠুন চক্রবর্তী ব্রিগেডের মাঠে বিজেপিতে যোগদান করে তাঁর অভিনীত সিনেমার বেশ কিছু চোখা চোখা ডায়লগ বলে উপস্থিত তামাম বিজেপি কর্মীদের মন জিতে নিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর এই ডায়লগ নির্বাচনী আবহে যথেষ্ট হিংসাত্মক পরিস্থিতিতে উস্কানি দিয়েছে এই অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে এফ‌আইআর, যার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন মিঠুন। আজ মঙ্গলবার এই মামলার শুনানি হবে এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছিলো।

কিন্তু মিঠুন চক্রবর্তীর এই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল কিছুটা সময় চেয়ে নেন। যার ফলে বিচারপতি কৌশিক চন্দ্র ঘোষণা করেছেন যে এই মামলার শুনানি হতে চলেছে আগামী ২৫ শে জুন বেলা ২ টোর সময়ে।মানিকতলা থানায় মিঠুন চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়।

আরও পড়ুন-নারদ মামলায় হলকনামা গ্রহণ করল না হাইকোর্ট। চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ মুখ্যমন্ত্রী।

উত্তর কলকাতার যুব তৃণমূল নেতা মৃত্যুঞ্জয় পাল মিঠুন চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ দায়ের করেছিলেন।তিনি অভিযোগ করেছিলেন যে, মিঠুন চক্রবর্তী একজন তারকা হয়ে তার সিনেমার ডায়লগ গুলি বলে বাংলার মাটিতে হিংসাত্মক পরিস্থিতিকে আরও বাড়িয়ে তুলেছেন। তাঁর এই ডায়লগ বাংলার ভোট পরবর্তী সময়েও হিংসাত্মক পরিস্থিতির উদ্ভবে ইন্ধন জুগিয়েছে।

আরও পড়ুন-“উত্তরপ্রদেশে মোদীর ভোটপ্রচারের ফলেই আছড়ে পড়বে করোনার তৃতীয় ঢেউ।

এই এফ‌আইআর দায়ের করার পরেই কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। প্রসঙ্গত ভোটের আবহে তার কিছু ডায়লগ যেমন, ‘আমি জাত গোখরো, এক ছোবলেই ছবি,’ ‘মারবো এখানে লাশ পড়বে শ্মশানে’, এইগুলি ভোটের আবহে হিংসা হানাহানির ঘটনায় ইন্ধন যুগিয়েছে বলে দাবী করা হচ্ছে।