নিউজপলিটিক্সরাজ্য

হিংসায় উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে মিঠুন চক্রবর্তীকে আবার নোটিশ পাঠিয়ে করা হতে পারে জিজ্ঞাসাবাদ।

নিজস্ব প্রতিবেদন: মিঠুন চক্রবর্তী ব্রিগেডের মাঠে বিজেপিতে যোগদান করে তাঁর অভিনীত সিনেমার বেশ কিছু চোখা চোখা ডায়লগ বলে উপস্থিত তামাম বিজেপি কর্মীদের মন জিতে নিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর এই ডায়লগ নির্বাচনী আবহে যথেষ্ট হিংসাত্মক পরিস্থিতিতে উস্কানি দিয়েছে এই অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে এফ‌আইআর, যার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন মিঠুন। আজ এই মামলার শুনানি হবে এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছিলো।মানিকতলা থানায় মিঠুন চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়।

উত্তর কলকাতার যুব তৃণমূল নেতা মৃত্যুঞ্জয় পাল মিঠুন চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। তিনি অভিযোগ করেছিলেন যে, মিঠুন চক্রবর্তী একজন তারকা হয়ে তার সিনেমার ডায়লগ গুলি বলে বাংলার মাটিতে হিংসাত্মক পরিস্থিতিকে আরও বাড়িয়ে তুলেছেন। তাঁর এই ডায়লগ বাংলার ভোট পরবর্তী সময়েও হিংসাত্মক পরিস্থিতির উদ্ভবে ইন্ধন জুগিয়েছে।এদিকে গতকাল ভার্চুয়াল শুনানিতে বিচারপতি কৌশিক চন্দের প্রশ্নের উত্তরে সরকারি আইনজীবী বলেছেন, “মিঠুন চক্রবর্তী প্রকাশ্য সভায় বলেছিলেন, ‘মারবো এখানে লাশ পড়বে শ্মশানে,’ ‘আমি জাত গোখরো এক ছোবলে ছবি’।

আরও পড়ুন-কলকাতা পুরসভার সাথে দেবাঞ্জনের কি যোগসূত্র? সমস্ত দপ্তরকে নথি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিলেন ফিরহাদ হাকিম

এছাড়াও সরকারি আইনজীবী মন্তব্য শুনে বিচারপতি কৌশিক চন্দ প্রশ্ন করেছেন, ‘এই মন্তব্য করায় রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসার সৃষ্টি হয়েছে কি?’এদিকে মিঠুন চক্রবর্তীর আইনজীবী মহেশ জেঠমালানি বলেছেন, “মিঠুন চক্রবর্তী যে ডায়লগ গুলি বলেছেন সেগুলি সিনেমার ডায়লগ । ওই ডায়লগ গুলি ভারতীয় সেন্সর বোর্ড অনুমোদন করেছে।

আরও পড়ুন-“অবিলম্বে চালু করুন লোকাল ট্রেন।”- হাওড়ার ডিআর‌এমের সাথে দেখা করে চিঠি দিলেন লকেট চট্টোপাধ্যায়

তাহলে এই ডায়লগ গুলো প্রকাশ্যে বলা অপরাধ কিভাবে হয় ?”এই আবহের মধ্যে আবার আগামী সোমবার মিঠুন চক্রবর্তীকে নোটিশ পাঠিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হতে পারে বলে জানা গিয়েছে। ‌ আগামী বুধবার এই মামলার ফের শুনানি রয়েছে বলে জানিয়েছে আদালত। আগামী সোমবার আবার ভার্চুয়াল মাধ্যমে মিঠুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন তদন্তকারী অফিসাররা।

Related Articles

Back to top button