নিউজ

ভোটের ফল প্রকাশের আগেই জঙ্গলমহল জুড়ে পড়লো মাওবাদী পোস্টার। চাঞ্চল্য জঙ্গলমহলে।

নিজস্ব প্রতিবেদন: আগামীকাল প্রকাশিত হতে চলেছে একুশের ভোটের ফলাফল। অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন মানুষজন। একদিকে বাংলায় প্রবল সন্ত্রাস চালাচ্ছে করোনা আবার অপরদিকে একুশের ভোটের ফল প্রকাশ , এই দুই আবহে যথেষ্ট উত্তাপ ছড়িয়ে পড়েছে বাংলার বুকে। মানুষজন মৃত্যু ভয়ে তটস্থ হয়ে রয়েছেন এমনিতেই।ভোটের উদ্দীপনা এক নিমেষে হয়েছে ধুলিস্মাৎ। এখন শুধু বেঁচে থাকার লড়াই।

মানুষ চাইছে যেকোনো মূল্যে এই পৃথিবীর বুকে তার অস্তিত্ব অক্ষুন্ন রাখতে। একুশের ভোট ঘিরে যথেষ্ট উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিলো পরিস্থিতি। জায়গায় জায়গায় দেখা গিয়েছে হিংসা হানাহানির ঘটনা। তৃণমূল এবং বিজেপি – রাজ্যের এই দুই শক্তিধর রাজনৈতিক সংগঠনের সম্মুখ সমরে যথেষ্ট উত্তপ্ত হয়ে রয়েছে বাংলার রাজনৈতিক আবহ। এই পরিস্থিতির মধ্যেই জঙ্গলমহল জুড়ে পড়লো মাওবাদী পোস্টার। জঙ্গলমহলে কয়েক মাস ধরে মাওবাদী কার্যকলাপ পরিলক্ষিত হচ্ছে।

আরও পড়ুন-“যত তাড়াতাড়ি সম্ভব অক্সিজেনের ব্যবস্থা করুন”- কেন্দ্রকে কড়া ধমক দিল্লি হাইকোর্টের

আজ ঝাড়গ্রাম এর বিনপুর থানার অন্তর্গত চাঁদাবিলা, মাধপুর এলাকায় বেশ কয়েকটি মহাবোধি পোস্টার দেখতে পাওয়া যায়। এতদিন মাওবাদী পোস্টার দেখা যেত হাতে লেখা কালিতে , কিন্তু এবারে ছাপা অক্ষরের পরিষ্কার ভাষায় এই পোস্টার পড়েছে জঙ্গলমহলে। স্থানীয় বাসিন্দারা এই পোস্টার গুলি দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে কয়েকটি দোকান এবং বাড়ির দেওয়ালে সাঁটানো এই পোস্টার খুলে নিয়ে চলে যায় ।

পরিষ্কার হবে ছাপানো ওই পোস্টারে লাল রঙে লেখা রয়েছে , “ইনক্লাব জিন্দাবাদ, মাওবাদী জিন্দাবাদ”এছাড়াও আহ্বান জানানো হয়েছে যে,”জঙ্গলমহলে আদিবাসীদের ভেদাভেদ করা যাবে না, সারা ভারতবর্ষ জুড়ে সশস্ত্র বিপ্লব গড়ে তুলুন । অবৈধ খাদান গুলি বন্ধ করতে হবে, আদিবাসীদের উপর অত্যাচার করা যাবে না, দেশের সমস্ত অ্যাসিস্ট শক্তিকে চিহ্নিত করে সশস্ত্র আন্দোলন গড়ে তুলুন, আদিবাসীদের অবিলম্বে ধর্ম কোড দিতে হবে।”ভোটের গণনার আগেই এই পোস্টটা জঙ্গলমহলে যথেষ্ট আতঙ্কের সূচনা করেছে ।

Related Articles

Back to top button