মদন মিত্রের শারীরিক অবস্থা আপাতত স্থিতিশীল। সিসিইউ থেকে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হল জেনারেল‌ বেডে।

মদন মিত্রের শারীরিক অবস্থা আপাতত স্থিতিশীল। সিসিইউ থেকে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হল জেনারেল‌ বেডে।

নিজস্ব প্রতিবেদন: কামারহাটির এবারের তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্র। সদা সর্বদা নিজস্ব মেজাজে দেখা যায় তৃণমূলের এই দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতা কে। বিগত কয়েক মাস ধরেই তিনি আলোচনার কেন্দ্রে রয়েছেন। এমনিতেই তৃণমূলের যথেষ্ট জনপ্রিয় মন্ত্রী তিনি। ‌ এছাড়াও বর্তমান যুব সমাজের একটা বিরাট অংশ তার অনুগামী। তার প্রত্যেকটি লাইভ ভিডিও সম্প্রতি তাকে আরো জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছে।

লাইভ ভিডিও গুলো কে ঘিরে ট্রোলিং করা হলেও অনেকেই তার এই ভিডিও দেখার জন্য ব্যাকুল হয়ে অপেক্ষা করেন। মদন মিত্র নিজে একটি টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে বিতর্কের সময় বলেছিলেন ‘আমি বাংলার ক্রাশ।’ এছাড়াও কয়েকদিন আগেই তাকে দেখা গিয়েছিল গঙ্গাবক্ষে একটি অনুষ্ঠানে, ওই অনুষ্ঠানে তার সাথে ছিলেন বিজেপি প্রার্থী অভিনেত্রী পায়েল সরকার এবং শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়।ভোট পর্ব চলাকালীন পঞ্চম দফার মধ্যেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন মদন মিত্র।

আরও পড়ুন-করোনা আবহে ছুটি বাতিল হওয়ায়, পুলিশ স্টেশন এর মধ্যেই গায়ে হলুদের পর্ব সম্পন্ন হলো মহিলা কনস্টেবলের।

তার শরীরে অক্সিজেনের অভাব পরিলক্ষিত হয়েছিল। ‌ তৃণমূলের পার্টি অফিসে তাকে অক্সিজেন দেওয়া হয়। কিন্তু তারপরেও স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়ায় তাকে গত বুধবার এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ‌কোভিড পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে তাঁর। অ্যাপোলো হাসপাতালের সিসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয় তাঁকে। মদন মিত্রের সুস্থতা কামনায় সকলেই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন সুস্থতার বার্তা দিয়ে।

শ্রীলেখা মিত্র, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ অনেকেই তাঁর সুস্থতা কামনা করেছেন।জানা গেছে আপাতত মদন মিত্রের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। তবে এখনই পুরোপুরি বিপন্মুক্ত হননি তিনি। শ্বাসকষ্টের সমস্যা এখনো রয়েছে তাঁর। সিসিইউ থেকে তাকে জেনারেল বেডে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।