বাথটবে শুয়ে লাস্যময়ী নুসরত, মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল সেই লুকের ছবি, রইলো সেই ছবি!

মৃন্ময় দে, কলকাতা: আরো একবার সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে উঠলেন নুসরত জাহান।বাংলা টলিউড সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির প্রথম সারির নায়িকাদের মধ্যে আছেন তিনি। রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত সিনেমার মাধ্যমে রুপালি জগতে পা রাখেন তিনি। এরপর একের পর এক ছবিতে নায়িকার ভূমিকায় অভিনয় করেন।

গত লোকসভা ভোটে মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির হাত ধরে বসিরহাটে সাংসদ প্রার্থী হন নুসরত। জীবনের প্রথম রাজনৈতিক লড়াইয়ে তিনি বিজেপি হেভিওয়েট প্রার্থী সায়ন্তন বসু কে পরাজিত করে বসিরহাটের সাংসদ হিসেবে নির্বাচিত হন।

আরও পড়ুন- একে নিন্মচাপের জের, তার ওপর পূর্ণিমায় ফুঁসছে দিঘা, উপচে পড়ছে বৃহৎ আকারের ঢেউ, সেই জলের তোড়ে ভেসে এল মৃ’তদেহ

অভিনেত্রী এবং সাংসদ হিসেবে সর্বদাই লাইমলাইটে থেকেছেন তিনি। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকার টিকটক নিষিদ্ধ করায়, সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মন্তব্য করেন। তিনি মন্তব্য করেন কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত নাসা বা গুগোল থেকে বৈজ্ঞানিক এবং গবেষক নিয়ে এসে টিকটকের সমতুল্য কোন ভারতীয় অ্যাপ বানানো। এই মন্তব্যের পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রমাগত ট্রোলিং এর শিকার হন তিনি

আরও পড়ুন – দুধে জল মেশানো আছে কি না বুঝবেন কিভাবে? জেনে নিন একটি সহজ উপায়

কিন্তু টিকটক না থাকলেও অন্য আরেক সোশ্যাল মিডিয়া ইন্সটাগ্রাম এর মাধ্যমে আবারো ভাইরাল হয়ে ওঠেন তিনি। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে নুসরত তার বাথরুমের বাথটাবে শুয়ে ছবি পোস্ট করেন। কালো রঙের শার্ট এবং নীল কালারের জিন্স পরিহিত অবস্থায় তার এই সৌন্দর্যরূপ অগণিত ভক্তদের মনে ঝড় তুলেছে। তার লিপস্টিকের ঠোঁটের মোহময়তায় মুগ্ধ তার ভক্ত এবং অনুরাগী গণ।

সম্প্রতি টিকটক নিষিদ্ধ হওয়াকে কেন্দ্র করে অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র বসিরহাটের সাংসদ নুসরাত জাহান এবং যাদবপুরের সংসদ মিমি চক্রবর্তী কে উদ্দেশ্য করে একটি হাস্যকর কিন্তু তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করেন। শ্রীলেখা মিত্র বলেন টিকটক নিষিদ্ধ হয়ে গেলে যাদবপুর এবং বসিরহাটের লোকেরা কি করে তাদের সাংসদের দেখা পাবেন।

বসিরহাটের সাংসদ বোধহয় তার লোকসভা কেন্দ্রের লোকেদের সেই সুযোগটাই ইন্সটাগ্রাম এর মাধ্যমে করে দিলেন।

দেখে নিন ইনস্টাগ্রামে প্রকাশিত সেই উষ্ণ ছবি

 

View this post on Instagram

 

The eye is always caught by light, but shadows have more to say – Gregory Maguire . Pic courtesy @sandip3432

A post shared by Nusrat (@nusratchirps) on

এখানে আপনার মতামত জানান