‘আরেকটু হলে আমার ছেলেদের গুলি করে মেরেই ফেলত’;বুথ পরিদর্শনে গিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে আক্রমণ করে অভিযোগ লাভলী মৈত্রের।

‘আরেকটু হলে আমার ছেলেদের গুলি করে মেরেই ফেলত’;বুথ পরিদর্শনে গিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে আক্রমণ করে অভিযোগ লাভলী মৈত্রের।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-নির্বাচনী প্রচার চলার শুরু থেকেই শীর্ষস্থানে রয়েছে সোনারপুর দক্ষিণ কেন্দ্রের প্রার্থী লাভলী মৈত্রের নাম। তৃণমূলের তারকা প্রার্থী হবার পাশাপাশি ব্যক্তিগত পরিচয়ে হাওড়া গ্রামীণ এর প্রাক্তন পুলিশ সুপার সৌম্য রায়ের স্ত্রী তিনি।প্রার্থী হিসেবে তার নাম ঘোষণা করার পরেই তার স্বামীকে নিজের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। এমতাবস্তায় সোনারপুর কেন্দ্রে জয়ের জন্য মরিয়া হয়ে রয়েছেন লাভলী।

গতকাল চতুর্থ দফার ভোটের দিন সোনারপুর দক্ষিণ এ ভোট গ্রহণ করা হয়েছে। এমতাবস্থায় বেশ কয়েকটি বুথ থেকে অশান্তির খবর সামনে আসে।তড়িঘড়ি সেই বুথ গুলিতে উপস্থিত হয়েছিলেন লাভলী মৈত্র।কোন রকম ভাবেই তৃণমূলের ভোটের উপর প্রভাব যাতে না পড়ে সেই চেষ্টাই করেছিলেন তারকা প্রার্থী। এমতাবস্থায় একটি বুথে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখে দেরির কারণ জিজ্ঞেস করেন অভিনেত্রী। ফলস্বরূপ কিছুক্ষণের মধ্যেই সেখানে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সাথে লাভলীর বচসা শুরু হয়। কিছুক্ষণ অশান্তি চলার পর সেখান থেকে বেরিয়ে যান তিনি।

আরও পড়ুন-ভোট দিলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী, হিরন ও যশ! ভাইরাল হলো ভিডিও!

পরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে রীতিমতো কিছু আশ্চর্যকর দাবি করতে দেখা যায় লাভলীকে। অভিনেত্রী জানান,বুথের বাইরে কফি খেতে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানেও ঝামেলা করা হয়। আরেকটু হলেই তার ছেলেদের মেরে ফেলত কেন্দ্রীয় বাহিনী এমনটাও বলেন অভিনেত্রী।প্রসঙ্গত চতুর্থ দফার ভোটের শুরু থেকেই কেন্দ্রীয় বাহিনী কাঠগড়ায় রয়েছে। এই প্রসঙ্গে লাভলী মৈত্র জানান,”গুলি না করলে দাঙ্গা না করলে ওরা জানে যে কটা ভোট পাবে সেই কটাও বিজেপি পাবে না।

তাই দাঙ্গা হাঙ্গামা করে ভোট পাওয়ার চেষ্টা করছে”।প্রসঙ্গত প্রার্থী তালিকায় তার নাম ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই বেশ উৎসাহিত ছিলেন তৃণমূলের এই তারকা প্রার্থী। মনোনয়নপত্র জমা দিতে গিয়ে রীতিমতো নাচ-গানের মিশেলে উৎসব সৃষ্টি করেছিলেন লাভলী। প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে লাভলীর বলেন,”দলের এত কর্মী সমর্থকদের ভালবাসা ও সম্মানে আমি অভিভূত। আজ আমার জীবনের অন‍্যতম স্মরণীয় দিন। এত মানুষের ভালবাসা পাচ্ছি, আমার জয়ের ব‍্যাপারে আমি নিশ্চিত”।