নিউজপলিটিক্স

প্ল্যাকার্ডে কন্যাশ্রী বানান ভুল। দিলীপ ঘোষকে বর্ণপরিচয় পাঠালেন কংগ্রেস নেতা।

নিজস্ব প্রতিবেদন: গত বুধবার সংসদে গান্ধী মূর্তির পাদদেশে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন দিলীপ ঘোষ সহ অন্যান্য বিজেপি সাংসদরা। কিন্তু দিলীপ ঘোষের হাতের পোস্টারে লেখা শব্দে বানান ভুলের জন্য যথেষ্ট অস্বস্তির মুখোমুখি হয়েছেন দিলীপ ঘোষ, সোশ্যাল মিডিয়ায় যথেষ্ট ট্রোলিংয়ের মুখোমুখি হতে হচ্ছে তাকে। কন্যাশ্রী ইস্যুতে এবং অন্যান্য ইস্যুতে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন দিলীপ ঘোষ সহ অন্যান্য বিজেপি সাংসদরা।

হাতে পোস্টার নিয়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন দিলীপ ঘোষ‌। হাতে তিনি প্ল্যাকার্ডে লিখেছিলেন কন্যাশ্রী চাইনা , সম্মান চাই। কিন্তু প্ল্যাকার্ডে কন্যাশ্রী বানান লেখা হয়েছে ‘কন্নাশ্রী’ বলে, আবার ‘চাই’ শব্দটির ই কারের মাত্রা দেওয়া হয়েছে উল্টো দিকে। আর এর ফলেই যথেষ্ট বিড়ম্বনার মধ্যে পড়েছেন দিলীপ ঘোষ। সোশ্যাল মিডিয়ায় হু হু করে শেয়ার হয়ে চলেছে এই ছবিটি। বানান ভুলের জন্য যথেষ্ট অস্বস্তির মধ্যে পড়েছেন দিলীপ ঘোষ। রাজনৈতিক দলগুলিও যথেষ্ট কটাক্ষ করতে শুরু করেছে এই লেখা নিয়ে। আবার রাজ্যের তৃণমূল সংগঠন‌ও এই লেখাকে কেন্দ্র করে রাজ্য বিজেপির উপরে যথেষ্ট আক্রমণ শানিয়ে চলেছে।

আরও পড়ুন – অনলাইন টিকিট বুকিংয়ে বড়োসড়ো পরিবর্তন নিয়ে এলো ভারতীয় রেল।

এদিকে প্ল্যাকার্ডে ভুল বানান লেখায় দিলীপ ঘোষকে কটাক্ষ করে ‘বর্ণপরিচয়’ পাঠিয়েছেন কংগ্রেস নেতা কৌস্তভ বাগচী। তিনি ইমেইল করে দিলীপ ঘোষকে বর্ণপরিচয়ের পিডিএফ পাঠিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। এই প্রসঙ্গে কৌস্তুভ বাগচী বলেছেন,

“আমি দেখলাম সংসদের বাইরে দিলীপ ঘোষ এবং অন্যান্য বিজেপি সাংসদরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। তারা যে ইস্যু নিয়ে প্রতিবাদ করছেন সেই বিষয়ে আমার কিছু বলার নেই, কিন্তু বাঙালি হিসেবে যেটা দেখলাম যে প্ল্যাকার্ড গুলিতে সমস্ত বাংলা বানান ভুল লেখা হয়েছে। ব্যাকরণের স্পষ্ট জ্ঞান না থাকার দরুন এই ঘটনা ঘটেছে। তাই দিল্লির বুকে তাঁদের ওই বানান দেখে সাধারণ মানুষ কি মনে করবে সেই কারণে আমার মনে হল তাঁকে বর্ণপরিচয় পাঠানো দরকার।”

Related Articles

Back to top button