স্ত্রীর অভিযোগের পরিপেক্ষিতে পাল্টা অভিযোগ দায়ের করলেন কাঞ্চন মল্লিক

স্ত্রীর অভিযোগের পরিপেক্ষিতে পাল্টা অভিযোগ দায়ের করলেন কাঞ্চন মল্লিক

নিজস্ব প্রতিবেদন: শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর এবার বাংলায় অন্যতম চর্চিত বিষয় হল কাঞ্চন মল্লিক এবং পিঙ্কি বন্দ্যোপাধ্যায়। সদ্য নির্বাচিত উত্তরপাড়া তৃণমূল বিধায়ক কাঞ্চন মল্লিক এর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তার স্ত্রী পিঙ্কি বন্দ্যোপাধ্যায় ।গতকাল চেতনায় বান্ধবীকে নিয়ে পিঙ্কি বন্দোপাধ্যায় কে হেনস্থা করেছেন কাঞ্চন মল্লিক এমনটাই অভিযোগ করেছেন পিঙ্কি। নিউ আলিপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি।

তিনি বলেছেন, “আমি আমার পরিবার খুবই আতঙ্কের মধ্যে দিয়ে দিন কাটাচ্ছি। শ্রীময়ী চট্টরাজ আমাকে অনেকবার ফোন করেছিল আমি উনার ফোন ধরিনি। এমনকি আমাকে হোয়াটসঅ্যাপে লিখে পাঠিয়েছে যে তুমি প্রস্তুত থেকো। বসুধা সিনেমাহলের সামনে আমাকে রাস্তার সামনে দাঁড়িয়ে কথা বলতে বাধ্য করার চেষ্টা করেছিল কাঞ্চন মল্লিক এবং তার বান্ধবী শ্রীময়ী চট্টরাজ।

আরও পড়ুন-চতুর্দিকে সমালোচনার মাঝেও নিজেকে ভাল মনে করাটাই একমাত্র পথ, মনে করছেন যশ।

আমি সেখানে কথা বলতে অস্বীকার করায় শ্রীময়ী চট্টরাজ আমাকে মারতে উদ্যত হয়, কাঞ্চন মল্লিক কোন প্রতিবাদ করেননি উল্টে উনি আমাকে জোর করে গাড়ি থেকে নামাতে চান। তাই আমি শ্রীময়ী চট্টরাজ এবং কাঞ্চন মল্লিকের বিরুদ্ধে নিউ আলিপুর থানায় এফআইআর দায়ের করি। আমি নিরাপত্তার অভাব বোধ করছি।”এদিকে স্ত্রী পিঙ্কি বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ দায়ের করেছেন তৃণমূল বিধায়ক তথা অভিনেতা কাঞ্চন মল্লিক।

আরও পড়ুন-শ্রাবন্তীর নতুন সম্পর্ক প্রকাশ্যে আসার পর বিশ্বাস ভাঙলো রোশনের!

তিনি বলেছেন আমাকে ওর শ্রীময়ী কে নিয়ে ভুল রটনা রটানো হয়েছে। আমি এর ব্যাপারে কথা বলতে চেয়েছিলাম আমার স্ত্রীর সাথে। কিন্তু যখনই আমি চেতলায় কথা বলতে চাই তখন আমার স্ত্রী এবং শ্যালক এমনভাবে দৌড়াদৌড়ি করতে থাকে যাতে ঘটনার উল্টো মানে হয়ে দাঁড়ায়। আমি আইনি লড়াইয়ে নামবো।”

জানা গিয়েছে গতকাল সন্ধ্যায় চেতলা থানায় স্ত্রী পিঙ্কি বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ দায়ের করেছেন কাঞ্চন মল্লিক। স্ত্রীর বিরুদ্ধে হেনস্থা, মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি।