“সাবালকদের ব্যর্থতা নাবালককেই দেখতে হয়।”- শুভেন্দু অধিকারীর মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে জবাব দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

“সাবালকদের ব্যর্থতা নাবালককেই দেখতে হয়।”- শুভেন্দু অধিকারীর মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে জবাব দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

নিজস্ব প্রতিবেদন: গতকাল শুভেন্দু অধিকারী বলেছেন, ‘অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় রাজনীতির এখনো সম্পূর্ণ বিষয়টা শিখে উঠতে পারেনি। রাজনীতিতে অভিষেক অনেকটাই নাবালক‌।’আজ পূর্ব মেদিনীপুরের বিপর্যস্ত এলাকা পরিদর্শনে গিয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ।

দীঘা সমুদ্রতট থেকে শুরু করে তাজপুর, মন্দারমণি, রামনগর, উদয়পুর প্রভৃতি এলাকায় তিনি গিয়েছেন এবং সেখানকার মানুষের সাথে কথা বলেছেন। শুভেন্দু অধিকারীর মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে অভিষেক বলেছেন,’রামনগরের দীর্ঘ রাস্তা আমি নিজে পরিদর্শন করলাম। মানুষ অনেক কষ্টের মধ্যে রয়েছে, তাদের সাথেও কথা বলেছি আমি। যারা রাস্তা , বাঁধ নির্মাণের দ্বায়িত্ব ছিলেন তাঁরা চরম দূর্নীতি করেছেন।

আরও পড়ুন-মাত্র ৭ দিনে ভেঙে পড়ল বাংলার পথশ্রী প্রকল্পের তৈরি রাস্তা। ক্ষোভ প্রকাশ করে বাকি থাকা কাজ বন্ধ করে দিলো স্থানীয় মানুষজন।

গার্ড‌ওয়াল গুলো ভেঙে গিয়েছে। এগুলো সেচমন্ত্রকের অধীনে করা হয়েছিলো, তখন কে সেচমন্ত্রী ছিলো সেটা আমাকে নতুন করে বলতে হবেনা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অনেক আশা নিয়েই এখানকার ভূমিপুত্রকে সেচমন্ত্রী করেছিলেন। তিনি নিজের মেরুদন্ড বিক্রি করে অন্য রাজনৈতিক দলে যোগ দিয়েছেন ।

আরও পড়ুন-আগামীকাল কাল থেকে বিকেল পাঁচটা থেকে আটটা পর্যন্ত খোলা থাকবে সকল রেস্ট্রুরেন্ট, ঘোষণা মমতা ব্যানার্জীর!

যারা মানুষের মুখের গ্রাস কেড়ে নিয়ে নিজেদের স্বার্থ চরিতার্থ করেছে, তাদের ছাড়া হবে না। যারা দূর্নীতি করেছে তারা রেহাই পাবে না। আমি নাবালক, উনি সাবালক। সাবালকের ব্যর্থতা গুলো এখন নাবালককেই দেখতে হচ্ছে। আমি উনাকে বলবো আগে আপনি সাবালকত্বের প্রমাণ দিন। এবার কেঁচো খুঁড়তে কেউটে বেরোবে।’