নিউজকলকাতাপলিটিক্সরাজ্য

“এটা বাংলার মেয়েকে বারমুডা পরতে বলার ফল”- উচ্ছ্বাসভরা গলায় বললেন অনুব্রত মণ্ডল

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাংলায় একুশের ভোটের চূড়ান্ত ফলাফল প্রায় স্থির হয়েই গিয়েছে। ম্যাজিক ফিগারের থেকেও ব্যাপক সংখ্যায় মার্জিন পেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূল কংগ্রেস এখনো পর্যন্ত মোট সিট পেয়েছে ২০৯ টি , সেখানে বিজেপি সিট পেয়েছে ৮০ টি। প্রথম থেকেই এই ভোটকে ঘিরে ব্যাপক অশান্তি ঝামেলা সূত্রপাত ঘটেছে বাংলার জায়গায় জায়গায়। বাংলার বিভিন্ন জায়গায় বিজেপি এবং তৃণমূল এর মধ্যে খণ্ডযুদ্ধ বেঁধে গিয়েছে।এছাড়াও বিভিন্ন জনসভায় একে অপরের বিরুদ্ধে বিষোদগার করে গিয়েছেন তৃণমূল এবং বিজেপির নেতা নেত্রীরা।

তার উপরে ভোটের শেষ লগ্নে বাংলায় মাথাচাড়া দিয়েছে করোনার দ্বিতীয় পর্যায়ের ঢেউ। এই ভয়াবহ আবহের মধ্যেই শেষ তিন দফা কোনরকমে সম্পন্ন হয়েছে। আজ প্রথম থেকেই ফলাফল অনুকূলে ছিল তৃণমূলের। সময় যত বেড়েছে তত সিট বেড়েছে তৃণমূলের। বিজেপি আগে থেকেই বলে আসছিল যে এবারে বাংলায় তারা ২০০ টি সীট অতিক্রম করে যাবে।কিন্তু বিজেপির স্বপ্নকে বঙ্গ করে এখনো পর্যন্ত তারা সিট পেয়েছে মাত্র ৮০ টি। নন্দীগ্রামে জয় পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

তৃণমূলের নেতা নেত্রীরা কটাক্ষ ছুঁড়ে দিয়েছে বিজেপির দিকে।বীরভূমের দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতা অনুব্রত মণ্ডল বলেছেন, “মুখ্যমন্ত্রী দারুন খেলতে পারেন, উনার কোচিংয়ে আমি খেলা শিখেছি। এখনো খেলা হবে। বিজেপির নেতারা মুখ্যমন্ত্রীকে বারমুডা পরতে বলেছিলেন, বাংলার মেয়ের অপমান বাংলার মানুষ মেনে নেয়নি’, তাই ওদের এরকম অবস্থা।”এছাড়াও অনুব্রত মণ্ডল বলেছেন, “আমাকে দুটো নোটিশ পাঠিয়ে ছিল, নজর বন্দি করে রেখেছিল, কিন্তু আমাকে আটকানো মুশকিল, আমার নাম কেষ্ট মণ্ডল। আমি মায়ের দুধ খেয়ে বড় হয়েছি।”

Related Articles

Back to top button