“আমি যে ঘোড়া ছিলাম সেই ঘোড়াই রয়েছি।”- সুস্থ্য হয়ে বোলপুর ফিরে বললেন অনুব্রত মণ্ডল।

“আমি যে ঘোড়া ছিলাম সেই ঘোড়াই রয়েছি।”- সুস্থ্য হয়ে বোলপুর ফিরে বললেন অনুব্রত মণ্ডল।

নিজস্ব প্রতিবেদন: বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। প্রথম থেকেই তিনি যথেষ্ট বিতর্কের সৃষ্টি করে আসছেন। তাঁর মুখ থেকে বেরোনো যে কোনো কথাই মূহুর্তের মধ্যে বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে জায়গা করে নেয়। গতবারের নির্বাচনের আবহে তাঁর চড়াম চড়াম ঢাক বাজানোর নিদান এবং নকুলদানা দাওয়াই যথেষ্ট বিতর্কের সৃষ্টি করেছিলো।গত ২৭ শে মে আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। তীব্র শ্বাসকষ্ট শুরু হয়েছিল তার।

বোলপুরে এক চিকিৎসককে দেখানো হয়েছিল অনুব্রত বাবু কে। এক্সরে করতেই বুকে সংক্রমণ ধরা পড়েছিল তার। এরপর এটাকে আনা হয়েছিল কলকাতায়। একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁর বেশ কয়েকটি টেস্ট হয়েছিল। তারপর থেকে কলকাতাতেই চিকিৎসাধীন ছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। তিনি জানিয়েছিলেন যে তার শারীরিক অবস্থা বর্তমানে স্থিতিশীল রয়েছে। বোলপুরে একমাত্র মেয়ের সাথে থাকেন অনুব্রত বাবু। প্রথম থেকেই শারীরিকভাবে ততটা সুস্থতা নেই অনুব্রত মণ্ডলের মধ্যে। তাঁর স্ত্রী প্রয়াত হয়েছেন। কয়েকবছর আগেই হারিয়েছেন মা’কে।

আরও পড়ুন-‘বিজেপিতে আছে বলেই শুভেন্দুরা বেঁচে গিয়েছেন।’- শুভেন্দু অধিকারীকে আক্রমণ কুণাল ঘোষের।

জানা গিয়েছে বর্তমানে যথেষ্ট সুস্থ আছেন অনুব্রত মণ্ডল। বুকের সংক্রমণ সেরে গিয়েছে তার। তার শারীরিক অসুস্থতায় অনেকেই মনে করে ছিল যে তিনি করোনার শিকার হয়েছেন, কিন্তু তার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।গতকাল বুধবার বাড়ি ফিরেছেন অনুব্রত মণ্ডল। বাড়ি ফিরেই তিনি মন দিয়েছেন দলীয় কার্যে । স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিমায় তিনি বলেছেন, “আমি ঠিক রয়েছি। আমি যে ঘোড়া ছিলাম সেই ঘোড়াই রয়েছি।”