নিউজদেশ

আগামী ৩ রা মে থেকে কি লকডাউন করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী? সঠিক খবর কি ?

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা দেশে মৃত্যুর ভয়াবহ তাণ্ডব চালাচ্ছে করোনা ভাইরাস। দেশ জুড়ে ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে। সেই সাথে দেখা গিয়েছে অক্সিজেনের সংকট। প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে। পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র এবং দিল্লিতে সামরিক লকডাউন জারি হয়ে গিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে ৫ ঘন্টা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দোকান বাজার গুলিকে।

এরই মধ্যে অনেকে মনে করছেন আগামী ৩ রা মে থেকে ২০ শে মে পর্যন্ত সারা ভারত জুড়ে লকডাউন করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী। একটি চ্যানেলের স্ক্রিনশট ভাইরাল হয়েছে যা অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করছেন। ‌ এই স্ক্রিনশট টিতে বলা হয়েছে , করোনার ভয়াবহ সংক্রমনের শৃংখল ভাঙ্গার জন্য আগামী ৩ রা মে থেকে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এরপর এই তীব্র আশঙ্কায় অত্যন্ত বিচলিত হয়ে পড়েছেন আপামর ভারতবাসী।

আরও পড়ুন-বাতিল হল একাদশ শ্রেণীর পরীক্ষা। নিজেদের স্কুলেই হবে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা।

প্রথম পর্যায়ে লকডাউনে ইতিমধ্যেই বিস্তর ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন অনেকেই। এরপর আবার লকডাউন শুরু হলে কর্মসংস্থান বন্ধ হয়ে যাবে বহু মানুষের। এর আগেও প্রধানমন্ত্রীর একটি ছবি দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় দাবি করা হয়েছিল যে গত ১৫ ই এপ্রিল থেকে ৩০ শে এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন জারি হবে। কিন্তু প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো জানিয়ে দিয়েছিল যে এই খবরটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

আগামী ৩ রা মে থেকে লকডাউন হতে চলেছে ভারতের বুকে এই খবরটিও সম্পূর্ণ ভুয়ো বলে দাবি করেছে প্রশাসন। প্রশাসন জানিয়েছে যে এবারে লকডাউন করার এখনো কোনো পরিকল্পনা নেই। প্রধানমন্ত্রী কয়েকদিন আগেই বলেছিলেন যে, “গতবছর ভারতের কাছে করোনার ভ্যাকসিন ছিলো না, সেইসাথে যথেষ্ট পরিমাণ পিপিই কিট, ওষুধ ছিলো না। উন্নত পরিকাঠামো ততটা ছিলনা করোনা চিকিৎসার জন্য । কিন্তু এবারে আমরা ক্ষুদ্র কন্টেইনমেন্ট জোনের দিকে গুরুত্ব দিয়েছি। তবে ভয়াবহ সংক্রমণ রুখতে লকডাউন শেষ বিকল্প বলে ধরা হচ্ছে।”

Related Articles

Back to top button