পুরস্কার নিতে গিয়ে মৃত বাবার উদ্দেশ্যে চোখে জল ইরফান পুত্রের! নেট দুনিয়ায় ভাইরাল ভিডিও।

পুরস্কার নিতে গিয়ে মৃত বাবার উদ্দেশ্যে চোখে জল ইরফান পুত্রের! নেট দুনিয়ায় ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সম্প্রতি গতবছর করোনাকালে হঠাৎ করেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছিলেন জনপ্রিয় অভিনেতা ইরফান খান।সুশান্ত সিং রাজপুত এর পর হঠাৎ করেই ইরফানের মৃত্যুর খবরে অবাক হয়ে গিয়েছিল বলিউড দুনিয়া। জানা গিয়েছিল দীর্ঘদিন ধরে মারণ রোগ ক্যান্সারের সাথে লড়াই করেছিলেন ইরফান।২০১৮ সালে ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই শুরু হয়েছিল ইরফানের। সে সময় তাঁর অভিনয় জীবন জনপ্রিয়তার শীর্ষস্থানে ছিল।

মুম্বইয়ে প্রাথমিক চিকিৎসার পরে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় লন্ডনে। সেখানেই দীর্ঘ চিকিৎসার পরে অভিনয় জগতে ফিরে আসেন ইরফান। এই সময়ে জনপ্রিয় চলচ্চিত্র ‘আংরেজি মিডিয়াম’ এর শুটিং করেছিলেন তিনি। সম্প্রতি তাঁর মৃত্যুর পর ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে এই ছবিতে অভিনয় করার জন্যই সেরা অভিনেতা এবং জীবনকৃতী সম্মান (লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট) পুরস্কারে ভূষিত করা হয়।

সম্প্রতি এই অ্যাওয়ার্ড শো এর কিছু মুহূর্ত নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে উঠেছে। যা দেখে রীতিমতো আপ্লুত হয়ে পড়েছেন নেটিজেনরা।ইরফান এই দুনিয়ায় না থাকায় তার পুরস্কার নিতে উপস্থিত হয়েছিলেন পুত্র বাবিল খান। ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায়,পুরস্কার প্রদান করার আগে ইরফানকে ট্রিবিউট জানাচ্ছেন শো এর দুই সঞ্চালক আয়ুষ্মান খুরানা এবং রাজকুমার রাও। সেই মুহূর্তে হঠাৎ করেই কাঁদতে শুরু করেন ইরফান খান এর পুত্র বাবিল খান। মৃত পিতার কথা শুনে মনকে শান্ত রাখতে পারেননি তিনি।

আরও পড়ুন –‘আরাধ্যার কাছে মিস ওয়ার্ল্ড ঐশ্বর্যর মতো নার্স আছে’; নিজের ছেলের বউকে নার্স বলে বিতর্কে জয়া বচ্চন!

এরপর পিতার শেষ দুটি পুরস্কার গ্রহণ করে অনেকটা আবেগপ্রবণ হয়ে বাবিল বলেন,”আমি সেভাবে কোনও স্পিচ তৈরি করে আসিনি। শুধু তোমাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই বাবা আমাকে এত ভালোবাসা দেওয়ার জন্য, আমাকে নিজের করে গ্রহণ করার জন্য। তোমাকে বলতে চাই, আমি আর তুমি— দু’জনে মিলে শেষ করব এই জার্নি“। তারপর পিতার পুরস্কারপ্রাপ্তির উদ্দেশ্যে সোশ্যাল মিডিয়াতেও বার্তা দেন বাবিল। যা দেখে রীতিমতো আপ্লুত হয়ে পড়েছেন অভিনেতা আয়ুষ্মান খুরানা। এক ইনস্টাগ্রাম পোস্টে আয়ুষ্মান লেখেন,”এই সুন্দর ছেলের সঙ্গে প্রথমবার দেখা হল।

বিশ্বাস ভবিষ্যতেও তাকে ভালো করতে দেখব”। প্রসঙ্গত জীবনে অনেক চড়াই-উতরাইয়ের পর অভিনয় জগতের শীর্ষে পৌঁছেছিলেন ইরফান খান।১৯৬৭ সালে রাজস্থানের এক গরিব পরিবারে জন্ম হয় ইরফান খানের। তাঁর বাবার টায়ারের ছোট ব্যবসা ছিল। ছোটবেলা থেকেই ক্রিকেটার হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন তিনি।কিছু ক্রিকেট টুর্নামেন্টে অংশ নিলেও অর্থের অভাবে শেষ পর্যন্ত তাঁর খেলা আটকে গিয়েছিল।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by JK24x7News (@jk24x7news)

এরপর হঠাৎ করেই অভিনয় জগতের প্রতি ভালোবাসা সৃষ্টি হয় তার। যদিও এর জন্য নির্ধারিত কোন কারণ জানা যায়নি।তবে ছোটখাটো সিরিয়ালে অভিনয় করা শুরু করেছিলেন তিনি।২০০১ সালে ব্রিটিশ ছবি ‘দ্য ওয়ারিয়র’এ মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পান ইরফান। এরপর একের পর এক সুপারহিট চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। ‘মকবুল’, ‘লাইফ ইন আ মেট্রো’, ‘নেমসেক’, ‘পান সিং তোমার’ প্রভৃতি সুপারহিট চলচ্চিত্র রয়েছে ইরফান খানের ঝুলিতে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Babil (@babil.i.k)