নিউজঅফবিটদেশ

“চালু করুন এক দেশ এক রেশন কার্ড।”- রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট।

নিজস্ব প্রতিবেদন: মুখ্যমন্ত্রী কয়েকদিন আগেই তার প্রতিশ্রুতি মত চালু করেছেন দুয়ারে রেশন পরিষেবা। তবে তিনি জানিয়েছেন রাজ্যের সর্বত্র এই পরিষেবা চালু হবে খুব শীঘ্রই তবে কিছুদিন সময় লাগবে। এবার রাজ্যের প্রতিটি মানুষ যাতে যেকোনো জায়গা থেকে রেশন নিতে পারেন তার জন্য এক দারুণ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে রাজ্য সরকার। পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের খাদ্য দপ্তর জানিয়েছে যে আগামী আগস্ট মাসের মধ্যে রাজ্যবাসীর রেশন কার্ডের সাথে আধার কার্ড সংযুক্ত করে দেওয়া হবে যাতে রাজ্যের যেকোন জায়গা থেকে রাজ্যবাসীরা রেশন সামগ্রী যথার্থ পরিমাণে পান।

এই ঘোষণা করেছেন বর্তমান খাদ্যমন্ত্রী রথীন ঘোষ।তিনি বলেছেন, “রেশন কার্ডের সাথে আধার কার্ডের সংযুক্তিকরণ হলে গণবণ্টন ব্যবস্থা আরো সহজ এবং স্বচ্ছ হবে। এর ফলে যদি কোন রাজ্যবাসী তার ঠিকানা বদল করেন তাহলে তিনি নিকটবর্তী রেশন দোকান থেকেই তাঁর রেশন সামগ্রী নিতে পারবেন। তাঁর রেশন কার্ডের ঠিকানা পরিবর্তন করার তাহলে আর দরকার পড়বে না।”

আরও পড়ুন-ভোট-পরবর্তী হিংসায় রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছে শিশুরা।”- রাজ্যের ডিজিকে কড়া চিঠি দিলো জাতীয় শিশু সুরক্ষা কমিশন।

এদিকে গতকাল শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট রাজ্যকে নির্দেশ দিয়েছে যে, “অবিলম্বে রাজ্যে এক দেশ এক রেশন কার্ড নীতি চালু করতে হবে।পশ্চিমবঙ্গের পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য এই ব্যবস্থা অতি শীঘ্রই চালু করা দরকার। করোনার এই ভয়াবহ আবহে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার কোন আপত্তি তুলতে পারবে না।”ইতিমধ্যেই এই পরিষেবা শুরু হয়ে গিয়েছে গুজরাট থেকে শুরু করে মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, কেরালা, তেলেঙ্গানা, অন্ধ্রপ্রদেশ প্রভৃতি রাজ্যে।

আরও পড়ুন-“ভার্চুয়াল মাধ্যমে মিঠুন চক্রবর্তীকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে কলকাতা পুলিশ।”- নির্দেশ দিলো কলকাতা হাইকোর্ট

কিন্তু পশ্চিমবঙ্গ যুক্তি দিয়েছিল সেই ব্যবস্থা যদি পশ্চিমবঙ্গে চালু করা হয় তাহলে রাজ্যের উপর অতিরিক্ত চাপ পড়বে। তারপরেই সুপ্রিমকোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হওয়া পশ্চিমবঙ্গে অবিলম্বে এক দেশ এক রেশন কার্ড চালু করার দাবিতে। অবশেষে গতকাল এই ব্যবস্থা অতিশীঘ্র চালু করার জন্য সুপ্রিম কোর্ট পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে।

Related Articles

Back to top button