রাতভর ভারত-চিন সীমান্তে হুংকার ছাড়লো ভারতীয় বায়ুসেনার অ্যাপাচি হেলিকপ্টার, রইল ভিডিও

শৌভিক বাগ:ভারতীয় সে-নাবাহিনীকে লাদাখে চিনা সেনার গতিবিধি সংক্রান্ত বহু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে মার্কিন সে-না। উপগ্রহ চিত্রের অনেক কপি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তুলে দিয়েছে ভারতের হাতে। এবার ভারতের প্রতির-ক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং টেলিফোনে কথা বলেছেন মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব মার্ক এসপারের সাথে। ভারতের এই মুহূর্তে কি কি সমরাস্ত্রের প্রয়োজন সেই তালিকা চেয়েছে আমেরিকা। আমেরিকা জানিয়েছে এই যু’দ্ধকালীন পরিস্থিতির মধ্যে ভারতের পাশে আছে আমেরিকা।

যা প্রয়োজন তা তৎক্ষণাৎ পাঠানো হবে। এবার জানা গিয়েছে যে যু-দ্ধকালীন পরিস্থিতিতে ভারতকে অত্যাধুনিক ‘এক্সক্যালিবার’ দেওয়ার জন্য তৈরি আমেরিকা। এই অ’স্ত্রে’র গোলার পাল্লা হল ৪০ কিমি। এই গোলা ভারতীয় সে-নাবাহিনীতে ব্যবহৃত M77 ULTRA LIGHT হাউৎজার সহ বিভিন্ন কামানের সাথে অনায়াসে ব্যবহার করা যাবে। রাশিয়াও ভারতকে S 400 এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম দিতে রাজি হয়েছে। ভারতের পাশে রয়েছে বলে জানিয়েছে রাশিয়া, ফ্রান্স, ইজরায়েল।

আরও পড়ুন- “দিল বেচারার” ট্রেলার দেখে ভেঙে পড়লেন সারা আলি খান, ভেজা চোখে করলেন বিশেষ পোস্ট, রইলো সেই পোস্ট

রাশিয়া ভারতকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের যু’-দ্ধা’স্ত্র জরুরী ভিত্তিতে দেওয়ার জন্য প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। রাশিয়া ভারতকে এই অ’-স্ত্রস’ম্ভার হিসাবে দেবে ক্ষে’পণা’স্ত্র, যুদ্ধবিমান থেকে ছোঁড়া যায় এমন বম্ব, ম্যানপ্যাড এবং ট্যাঙ্ক ধ্বং-সকারী মিসাইল। ইজরায়েল আগেই ঋণে বারাক-৮ এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম দিয়েছে ভারতকে। এছাড়াও অত্যাধুনিক অ্যারো, আয়রন ডোম, ডেভিডস স্লিং ভারতকে ইজরায়েল দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

তবে বর্তমানে আলোচনা করার পর ভারত-চিন, দুই দেশ‌ই সীমান্ত থেকে নিজেদের সৈন্য সরাতে শুরু করেছে। তবে আগ্রাসী চিনকে মোটেও বিশ্বাস করতে রাজি নয় ভারত। তাই সীমান্তে এখনও অতন্দ্র প্রহরায় রত ভারতীয় সে-নাবাহিনী। গত বছরেই আটটি অ্যাপাচে অ্যাটাক হেলিকপ্টার কে ভারতীয় বায়ুসে-না নিযুক্ত করেছে। এই কপ্টারটি এমনভাবে তৈরি যে একে রাডারে ধরা যায়না। এটি প্রায় ২৮০ কিমি প্রতি ঘন্টা স্পীডে উড়তে পারে।

আরও পড়ুন- পিপিই কিট পরেই ‘দারুন’ জমজমাটি গানে তু’মুল নাচ তরুণী ডাক্তারের, ভাইরাল সেই দারুন ‘গরমি’ নাচের ভিডিও!

১৬ টি অ্যান্টি ট্যাঙ্ক মি-সা-ইল‌ও ছাড়তে পারে এই বি-ধ্বং-সী অ্যাটাক হেলিকপ্টার। গত সোমবার রাতেই ভারত চিন সীমান্তে এই অ্যাপাচে কপ্টার ফরোয়ার্ড এয়ারবেসে নাইট অপারেশন চালিয়েছে। এছাড়াও উড়েছে চিনুক কপ্টার, মিগ ২৯ প্রভৃতি বায়ুসেনার বিমান। রাতেও এই বায়ুসেনার কপ্টার , বিমান গুলি নিশ্চিন্তে অপারেশন চালাতে পারে।

এখানে আপনার মতামত জানান