নিউজদেশ

পাকিস্তানের ড্রোন হামলা রুখতে অব্যর্থ হাতিয়ার তৈরি করলো ভারত।

নিজস্ব প্রতিবেদন: গত মাসেই জম্মুর বায়ুসেনার নিয়ন্ত্রণাধীন টেকনিক্যাল এরিয়াতে জোড়া বিস্ফোরণ ঘটেছে। চীন অথবা পাকিস্তানের দিক থেকে আসা শক্তিশালী ড্রোন মারফৎ এই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। এই ঘটনায় সকলের মনেই ফিরে এসেছে পুল‌ওয়ামার আতঙ্ক। তবে কেন্দ্রীয় সরকার মনে করছে এই হামলার মূল চক্রী হতে পারে পাকিস্তান। ড্রোনের মাধ্যমে রাত দুটো নাগাদ এই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

এই বিস্ফোরণের শব্দে বহু দূরবর্তী অঞ্চল কেঁপে উঠেছিলো। এই ঘটনায় কেউ হতাহত না হলেও দুইজন আহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের প্রধান জানিয়েছেন যে এই ঘটনায় মনে করা হচ্ছে লস্কর-ই-তৈবার হাত রয়েছে। এই ঘটনায় দেশের প্রতিরক্ষা ক্ষেত্র যে ভবিষ্যতে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে তা মেনে নিচ্ছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা।
এছাড়া এই ঘটনার পরেও বেশ কয়েকবার জম্মু-কাশ্মীরের মাটিতে পাকিস্তানের দিক থেকে বিস্ফোরক বহনকারী নানান ড্রোন উড়ে এসেছে।

আরও পড়ুন –নর্থ সেন্ট্রাল রেল‌ওয়েতে জারি হল ১৬৬৪ টি শূন্যপদের বিজ্ঞপ্তি।

এই পরিস্থিতিতে এবার পাকিস্তানের দিক থেকে যে কোনো ড্রোন হামলা রোধ করার জন্য এক দারুণ হাতিয়ার বানিয়ে ফেলেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। এই নতুন ধরণের বন্দুকে জুড়ে দেওয়া হয়েছে তিনটি শক্তিশালী ইনসাস রাইফেল। এই রাইফেলের এক একটিতে ২০ টি করে গুলি থাকবে। স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে নিজে থেকেই গুলি চালানো যাবে এই রাইফেল গুলিতে।

রাতের অন্ধকারে যে কোনো রকমের ফ্লাইং ড্রোনকে চোখের নিমেষে নিশ্চিহ্ন করে দেবে এই ড্রোন। এই হামলা রোধ করার জন্য আলোকিত করা একটি ট্রেসার বুলেট লাগানো হয়েছে। এই বুলেটটির সাহায্যে অন্ধকারে উড়তে থাকা ড্রোন গুলিকে খুঁজে ধ্বংস করা যাবে। এই অ্যান্টি ড্রোন বন্দুক প্রায় ৮০০ মিটার দূরত্বে ড্রোনকে ধ্বংস করে দিতে পারবে। ৩৬০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে এই বন্দুক ফায়ার করতে পারবে।

Related Articles

Back to top button