নিউজপলিটিক্স

“ভারত বর্ষ স্বাধীন হলেও ত্রিপুরা এখনও স্বাধীন হয়নি”- ত্রিপুরায় তৃণমূল সাংসদদের উপর হামলার প্রসঙ্গে মন্তব্য মদন মিত্রের।

নিজস্ব প্রতিবেদন: একুশের ভোটে বাংলার মাটিতে ক্ষমতা দখলের পর ত্রিপুরার পাখির চোখ এবার আগামী ২০২৩ এর ত্রিপুরার বিধানসভা নির্বাচনে ত্রিপুরার ক্ষমতা দখল। বর্তমানে ত্রিপুর বিপ্লব দেবের সরকারকে পর্যুদস্ত করে ত্রিপুরার মাটিতে জোড়াফুল প্রস্ফূটিত করতে বদ্ধপরিকর তৃণমূল কংগ্রেস। গত সপ্তাহে শনিবার ত্রিপুরার মাটিতে আক্রান্ত হয়েছিলেন তৃণমূলের যুবনেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহা, জয়া দত্ত সহ তৃণমূলের বেশ কিছু কর্মী সমর্থকরা।

এরপরে গতকাল‌ও ত্রিপুরার মাটিতে দফায় দফায় হামলার মুখে পড়লেন তৃণমূলের নেতা নেত্রীরা। একদিনে তিনবার আক্রমণ করা হল দোলা সেন, অপরূপা পোদ্দার দের। আগরতলায় প্রত্যাবর্তন করার সময় তৃণমূল সাংসদ দের উপর হামলা করা হয় বলে অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল নেতৃত্ব। জাতীয় সড়কে দোলা সেন, অপরূপা পোদ্দার দের লাঠি, বাঁশ নিয়ে বিজেপি কর্মীরা হামলা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

আরও পড়ুন –তৃণমূলের খেলা হবে দিবসের দিন ইকোপার্কে ফুটবল খেললেন দিলীপ ঘোষ

দোলা সেন অভিযোগ করেছেন যে, তৃণমূলের উপরে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা লাঠি, বাঁশ নিয়ে আক্রমণ করেছে। তৃণমূল সাংসদ দোলা সেন এর ব্যক্তিগত সেক্রেটারির মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়েছে, এবং তৃণমূলের আর এক সংসদ অপরুপা পোদ্দারের ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে মাটিতে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এই হামলার প্রতিবাদে মুখ খুলেছেন কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র। তিনি বলেছেন,

“ত্রিপুরার ঘটনা প্রমাণ করলো যে ভারতবর্ষ স্বাধীন হলেও ত্রিপুরা এখনও স্বাধীন হয়নি। আজকের পর ত্রিপুরা স্বাধীনতার দিকে এগোচ্ছে। আজ তৃণমূলের নেতৃত্বের উপরে যে হাত পড়েছে, এর পাল্টা মার জনগণ দেওয়ার জন্য তৈরি হয়ে রয়েছে। মোদীজী যেমন বিধানসভা ভোটে বাংলার মাটি থেকে দু গালে দুটো ২১৩ এর থাপ্পড় নিয়ে দিল্লি ফিরে গিয়েছিলেন, এবার ত্রিপুরা তেই এক‌ই অবস্থা হবে।”

Related Articles

Back to top button