নিউজআন্তর্জাতিক

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হলো ভারত-রাশিয়া। শুরু করলো সংযুক্ত সৈন্য অভ্যাস।

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইন্ডিয়া গান্ধীর সময় থেকেই ভারতের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠেছে পৃথিবীর অন্যতম শক্তিশালী দেশ রাশিয়ার। ‌ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় যখন ভারতের বিরুদ্ধে আমেরিকা পর্যন্ত দাঁড়িয়ে গিয়েছিল তখন ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছিল রাশিয়া। রাশিয়ার অন্যতম প্রভাবশালী প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর যথেষ্ট বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বর্তমান। বিভিন্ন সময় রাশিয়ার কাছ থেকে অত্যাধুনিক অস্ত্রশস্ত্র কিনে আসছে।

রাশিয়ার কাছ থেকে সবথেকে শক্তিশালী এয়ার ডিফেন্স এস-৪০০ কিনেছে ভারত। এই চুক্তি আমেরিকার কাছে যথেষ্ট কাঁটা হয়ে বিঁধেছিল। কিন্তু আমেরিকার আপত্তি এড়িয়ে রাশিয়ার সাথে এই চুক্তি করেছে ভারত। ভারত রাশিয়ার মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক প্রথম থেকেই যথেষ্ট দৃঢ় বলে বিবেচিত হচ্ছে।

আরও পড়ুন-আজ নতুন ইতিহাস গড়তে চলেছে ভারত। ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী হিসাবে UNSC এর বৈঠকে সভাপতিত্ব করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এবার ভারত এবং রাশিয়া সন্ত্রাসবাদের সাফাই করতে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। বেশ কয়েকবার ভারত এবং রাশিয়া যৌথ উদ্যোগে সেনা মহড়া সম্পন্ন করেছে। ‌ এই সেনা মহড়া তারা ‘ইন্দ্র’ নামে সম্ভাষিত করে। জানা গিয়েছে রাশিয়ার এবং ভারতের মধ্যে এই সেনা মহড়া ইন্দ্র ২০২১ সম্পন্ন হতে শুরু করে দিয়েছে।

আরও পড়ুন-“সংস্কার করে দেওয়া হবে ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির।”- পাকিস্তানের হিন্দু মন্দির ভাঙচুর করার ঘটনায় প্রতিক্রিয়া দিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

রাশিয়ায় অবস্থিত ভলগোগ্রাদে প্রুটবয় রেঞ্জে এই যৌথ সেনা মহড়া হচ্ছে।সন্ত্রাসবাদ রুখতে ভারত এবং রাশিয়ার এই যৌথ উদ্যোগের প্রশংসা করেছে সংযুক্ত রাষ্ট্র। এই অভ্যাসের মধ্যে বিভিন্ন অত্যাধুনিক যুদ্ধাস্ত্র এবং শক্তিশালী ট্যাঙ্ক নিয়ে মহড়া দেওয়া হচ্ছে। রাশিয়া এবং ভারতীয় সেনার মধ্যে সামঞ্জস্য রক্ষা করা এবং বিভিন্ন প্রতীকী অভিযানের মাধ্যমে যুদ্ধকৌশল আরও উন্নত করার প্রচেষ্টা হচ্ছে এই যৌথ সেনা মহড়ার মাধ্যমে।

Related Articles

Back to top button