নিউজঅফবিটআন্তর্জাতিকস্বাস্থ্য

টীকাকরণে আমেরিকা এবং ব্রিটেনকেও ছাপিয়ে শীর্ষস্থানে আসীন হল ভারত

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনার ভয়াবহ সন্ত্রাস সারা দেশজুড়ে ব্যাপক তান্ডব চালাচ্ছে। ইতিমধ্যেই বহু মানুষের মৃত্যু ঘটেছে সারাদেশ ব্যাপী এই ভয়াবহ ভাইরাস এর কবলে পড়ে। বহু সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে রাজনৈতিক দলগুলি কেন্দ্রীয় সরকারের উপর দায় চাপিয়ে দিয়েছে যে এই ভাইরাসের মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়েছে মোদী সরকার। নির্বাচনে জিতে প্রথমবার সরকার গঠন করার সময়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জনপ্রিয়তা ছিলো, সেই জনপ্রিয়তার জোয়ারে অনেকটাই ভাটা দেখা দিয়েছে এই করোনার আবহে।

অনেকেই বলছেন প্রধানমন্ত্রীর সেই আসন অনেকটাই সমর্থন হারিয়েছে। একটি সমীক্ষায় ধরা পড়েছে যে বর্তমানে বিভিন্ন ঘটনার দরুন প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রিয়তা কমলেও তা টিকে রয়েছে ৭৪% তে।তবে এই জল্পনার মধ্যেই একটা নতুন সাফল্যের পালক জুড়লো প্রধানমন্ত্রীর মুকুটে। ভারতে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়ার সংখ্যা পার করেছে ৩২ কোটি।

আরও পড়ুন-শহরাঞ্চলের পাশাপাশি করোনা সংক্রমণ বাড়ছে গ্রামীণ এলাকাতেও!

জানা গিয়েছে এখনো পর্যন্ত দেশে মোট টিকা দেওয়া হয়েছে ৩২ কোটি ৩৬ লক্ষ ৬৩ হাজার ২৯৭ জনকে। ভারতে টীকাকরণ শুরু হয়েছিলো গত ১৬ ই জানুয়ারি থেকে। এই টীকাকরণে ভারত পিছনে ফেলে দিয়েছে ব্রিটেন এবং আমেরিকাকেও। আজ পর্যন্ত ব্রিটেনে মোট টীকা পেয়েছেন ৭ কোটি ৬৭ লক্ষ ৭৪ হাজার ৯৯০ জন।

আরও পড়ুন-“করোনার ডেল্টা রূপ ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের ৮৫ টি দেশে।”- সতর্কতা জারি করলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

সেই জায়গায় আমেরিকায় টিকা ৩২ কোটি ৩৩ লক্ষ ৩২৮ জন। ভারতীয় নাগরিকরা আরোগ্য সেতু অ্যাপ, কো উইন পোর্টাল এবং উমং অ্যাপের মাধ্যমে ভ্যাকসিনের জন্য রেজিস্ট্রেশন করাতে পারবেন। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, খুব শীঘ্রই তিনি সমস্ত দেশবাসীকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দিয়ে দেবেন। যারা ভ্যাকসিন নিতে চাইছেন তাঁরা টীকাকরণ কেন্দ্রে গিয়েও নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন।

Related Articles

Back to top button