নিউজ

এই 5 টি টিপস্ মেনে চললে খুব দ্রুত পাওয়া যাবে সরকারি চাকরি! রইল বিস্তারিত!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- মানুষ প্রতিনিয়ত হন্য হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে একটা সরকারি চাকরির জন্য তার পাশাপাশি লাখ লাখ টাকা খরচ করছে বিভিন্ন কোচিং সেন্টারে পড়াশোনা করার জন্য। শুধুমাত্র একটি সরকারি চাকরি পাবার আশায়। কারণ হয়ত এমনটা মনে করা হয় যে সরকারি চাকরি ছাড়া সমাজে প্রতিষ্ঠিত হওয়া যায়না। যদিও এটি একটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। কিন্তু তবুও এই সরকারি চাকরির পিছনে ছুটে চলেছে প্রতিনিয়ত হাজার হাজার লাখ লাখ বেকার যুবক-যুবতী। যদি আপনি বাড়িতে এই পাঁচটি টিপস ফলো করেন বা অনুসরণ করেন তাহলে এক বছরের মধ্যে আপনি সরকারি চাকরি পেতে পারেন এবং সেটি যেকোনো সরকারি চাকরি হতে পারে। জেনে নিন সংক্ষিপ্তভাবে সেই পাঁচটি টিপস এর কথা।

১) প্রথম ধাপ অতি অবশ্যই প্রথম ধাপে যে বিষয়টি আপনাকে মাথায় রাখতে হবে যে টাকা দিয়ে চাকরি হয়। এই ধারণাটা সম্পূর্ণ আপনার মাথা থেকে বের করে দিতে হবে। আপনাকে মনে রাখতে হবে যে আপনার মধ্যে সেই সমস্ত কিছুই বর্তমান রয়েছে একজন সরকারি চাকরি প্রার্থীর মধ্যে থাকা দরকার । লক্ষ্য স্থির রেখে আপনাকে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে হবে।

কোন একটা বিষয় নিয়ে পড়াশোনা করার পর কিছুটা যাওয়ার পর মনে হচ্ছে যে এটা হবে না পুনরায় আমরা লক্ষ্য পরিবর্তন করে দিলাম তেমনটা করলে একদমই চলবে না। পাশাপাশি এটি রেগুলারিটি মেনটেন করতে হবে। প্রতিনিয়ত পড়তে বসতে হবে একদিন পড়াশোনা করলাম 25 দিন বিভিন্ন কাজে বাইরে চলে গেলাম এমনটা করলে কিন্তু হবে না। শত কাজ থাকার পরও পড়াশোনা চালিয়ে যেতে হবে।

২) দ্বিতীয় যে ধাপটি সেটি হল পঞ্চম থেকে দশম শ্রেণী বইগুলি সমস্ত কিছু ভালো করে পড়াশোনা করা ।এমন ভাবে পড়াশোনা করতে হবে যাতে সমস্ত বিষয় আপনার নখদর্পণে থাকে।

৩) তৃতীয় ধাপ হলো নতুন কিছু সংযোজন করা। অর্থাৎ আমরা যদি এমনটা ভেবে থাকি যে সরকারি চাকরির পরীক্ষায় যে সমস্ত সিলেবাস রয়েছে শুধুমাত্র সেগুলি পড়াশোনা করব তাহলে কিন্তু চলবে না হতে পারে দেখলেন যে পরীক্ষার হলে গিয়ে এমন কিছু সংযুক্ত করা রয়েছে যেটা হয়তো আপনার অজানা তাই নতুন কিছু সংযোজন আপনাকে অবশ্যই করতে হবে।

৪) চতুর্থ যে ধাপটি রয়েছে সেটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। চতুর্থ এই ধাপে আপনাকে সেই সমস্ত প্রশ্নপত্র গুলি জোগাড় করতে হবে । যেটা চাকরির জন্য আপনি প্রস্তুতি নিচ্ছেন। আপনি যদি ব্যাংক এর পরীক্ষার জন্য চাকরি নিয়ে প্রস্তুতি নিয়ে থাকেন তাহলে অতি অবশ্যই আপনাকে আগের বছরের তারও আগের বছরের প্রশ্নপত্র প্যাকটিস করতে হবে।

৫) সবশেষ ,পঞ্চমত এমনটা বলতেই হয় যে আপনি নিজের ইচ্ছে মতন পছন্দের মতন চাকরি বাছাই করুন। হতে পারে সেটা রেল বা ব্যাংক বা অন্য যে কোন সেক্টর এবং তার সিলেবাস আয়ত্তে রাখুন। এই কয়েকটি উপায় অবলম্বন করলে এক বছরের মধ্যে অবধারিত আপনি সরকারি চাকরি পেয়ে যাবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button