“বাংলাকে উত্তরপ্রদেশ গুজরাট কিছুতেই হতে দেব না”- রাণাঘাটের জনসভা থেকে বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

“বাংলাকে উত্তরপ্রদেশ গুজরাট কিছুতেই হতে দেব না”- রাণাঘাটের জনসভা থেকে বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

নিজস্ব প্রতিবেদন: একুশের ভোটে অনেকটাই অন্যরকম আবহাওয়া পশ্চিমবঙ্গের বুকে। ‌ কারণ অন্যান্যবারের কোন ভোটে এতটা টানটান উত্তেজনা অনুভূত হয়নি পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক স্তরে। বিজেপি আত্মবিশ্বাসের সুরে জানিয়েছে তারাই বাংলার মাটিতে তাদের একচ্ছত্র আধিপত্য স্থাপন করতে চলেছে। এদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দৃপ্ত কণ্ঠে ঘোষণা করেছেন যে তিনি ১০-০ বলে বিজেপিকে মাঠের বাইরে বের করে দেবেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই প্রথম বাংলার মাটিতে এতবার জনসভা করতে আসছেন। বিজেপির একটাই লক্ষ্য যে করেই হোক নবান্নের সিংহাসন দখল করা। এদিকে বিজেপির চোখে চোখ রেখে মাটি কামড়ে দৃঢ়তার সঙ্গে লড়াই করে যাচ্ছে তৃণমূল। আবার বাম সংযুক্ত মোর্চা তাদের তরুণ ব্রিগেডের বলে বলীয়ান হয়ে যথেষ্ট আশাবাদী যে এবারে তারাও তাদের লাল ঝান্ডা সগৌরবে উড়িয়ে দেবে রাজ্যের অলিতে গলিতে।এদিকে রাণাঘাটের জনসভা থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে হুংকার ছুঁড়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন-শীতলকুচি তে নিহতদের পরিবারের সাথে ভিডিও কলে কথা বললেন মুখ্যমন্ত্রী। দিলেন পাশে থাকার আশ্বাস।

তিনি বলেছেন, “শীতলকুচির ঘটনায় তদন্ত করে অপরাধীদের খুঁজে বের করা হবে। এসপির সঙ্গে প্ল্যান করেছে বিজেপি। বিজেপির নেতারা বলছে গুলি চালিয়ে দাও আবার কেউ বলছে আট জনকে গুলি করে মেরে দেওয়া উচিত ছিল। এই সমস্ত নেতাদের নিষিদ্ধ করা উচিত। ‌ বিজেপি প্রথম থেকেই মনে করে আসছে রাজনীতি করা মানে শুধু গুলি চালানো আর সন্ত্রাস সৃষ্টি করা। তাই বাংলাতে কিছুতেই বহিরাগত গুন্ডাদের হাতে তুলে দেব না, বাংলাতে উত্তরপ্রদেশ গুজরাট হতে দেব না।”