নিউজটেক নিউজভাইরাল & ভিডিও

“আত্মরক্ষার জন্যই এই কাজ করেছি”- ক্যাব চালককে চড় মারার ঘটনায় দাবি করলেন লক্ষ্ণৌয়ের তরুণী।

নিজস্ব প্রতিবেদন: লক্ষ্ণৌয়ের একটি ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র আলোড়নের সৃষ্টি করেছে। একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা গিয়েছে এক তরুণী সমানে চড় মেরে যাচ্ছেন এক ক্যাব চালককে। পরে জানা গিয়েছে যে ওই তরুণী অভিযোগ করেছেন যে ওই ক্যাবচালক তাকে নাকি পিষে মারতে চেয়েছিলেন। ওই তরুণীর দাবি অনুযায়ী ভিডিও ফুটেজ পরীক্ষা করে দেখা হয় যে তরুণী ভ্রান্ত তথ্য দিয়েছেন।

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে তরুণী হঠাৎ করে অবিবেচকের মতো রাস্তা পার হয়ে ক্যাবচালকের সামনে চলে আসেন। তারপরেই তিনি ক্যাবচালককে গাড়ি থেকে টেনে নামিয়ে চড় মারতে থাকেন। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন ওই তরুণী যার নাম প্রিয়দর্শিনী নারায়ন যাদব, ওই ক্যাব চালক সাদাত আলি সিদ্দিকীকে ২২ টি চড় মেরেছেন। এছাড়াও ভিডিওতে দেখা গিয়েছে জনৈক এক ব্যক্তি ঘটনাটির মীমাংসা করতে গেলে ওই উগ্র স্বভাবের তরুণী তাঁকেও চড় মারেন।

আরও পড়ুন-মৌড়িগ্রাম ডিপোয় বন্ধ হল রিফিলিং। সন্ধ্যার পর দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলার ভোগান্তি বাড়তে পারে।

এরপরে অবশ্য ওই ব্যক্তির থেকেও চড় খেতে হয় প্রিয়দর্শিনী কে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ঘটনার বিষয়টি ভাইরাল হতেই দেশবাসী ওই তরুণীর বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়ে। এদিকে পুলিশ অবিবেচকের মতো গ্রেফতার করে সাদাতকে। কিন্তু ২৮ ঘন্টা পরে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং হয়ে উঠেছে ‘#অ্যারেস্ট লক্ষ্ণৌ গার্ল’ ।সমস্ত নেটিজেনরা ওই তরুণীর বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন। ইতিমধ্যেই ওই তরুণীকে গ্রেফতারের দাবিতে সরব হয়েছেন সকলেই। কিন্তু এখনো তরুণীকে গ্রেফতার করা হয়নি।

আরও পড়ুন-“২০২১ সালে পাশ করা পড়ুয়ারা ইন্টারভিউয়ের জন্য আসবেন না।”- ব্যাঙ্ক বলল ছাপার ভুল।

এদিকে ওই তরুণী প্রিয়দর্শিনী বলেছেন,”আমি আত্মরক্ষার্থে এই কাজ করেছি। ওই ক্যাবচালক আমাকে ধাক্কা মেরে পালিয়ে যাওয়ার ধান্দায় ছিল। তাই ওকে যেটা মেরেছি তার থেকে আরও বেশি মারা উচিত ছিল। আমাদের সাধারণ জনগণের জীবন কি সস্তা?”

তরুণী এই বয়ান শোনার পর থেকে আরও বেশি তার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিচ্ছেন নেটিজেনরা। জানা গিয়েছে উগ্র স্বভাবের ওই তরুণী এর আগেও বহু মানুষের সঙ্গে বিভিন্ন ইস্যুতে ঝামেলায় জড়িয়েছেন।

Related Articles

Back to top button