নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“নিরাপত্তা দিতে পারিনি কর্মীদের”- দিলীপ ঘোষের সুরে বললেন বাবুল সুপ্রিয়

নিজস্ব প্রতিবেদন: নিরাপত্তার অভাব বোধ করে বহু বিজেপি কর্মী প্রাণ বাঁচানোর তাগিদে নাকি তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন করেছেন এমনটাই দাবী করছেন বিজেপি নেতারা। এই প্রসঙ্গে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, “দলের কর্মীদের আমরা নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছি, তাই কর্মীরা দল ছেড়ে চলে যাচ্ছে।” বিজেপি রাজ্য সভাপতির এই বক্তব্যকে কার্যত স্বীকার করে নিয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়।

সম্প্রতিক বাবুল সুপ্রিয়র অন্যতম গড় আসানসোলের বুকে বিজেপিতে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে।আসানসোলের বিজেপির জেলা সম্পাদক মদনমোহন চৌবে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেছেন। এই পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় গতকাল একটি বিবৃতিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় লিখেছেন,”তৃণমূল তাদের সুপ্রিমোর অনুপ্রেরণায় সন্ত্রাসের মাধ্যমে, পুলিশ প্রশাসনের উপর চাপ সৃষ্টি করে বিজেপি কর্মীদের ভয় দেখিয়ে জোর করে তাদের দলে যোগদান করাচ্ছে।

আরও পড়ুন-করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে কি কমেছে প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রিয়তা?

আমি দিলীপ দার সাথে সম্পূর্ণ সহমত পোষণ করছি যে, ভোট পরবর্তী সময়ে তৃণমূল কর্মীদের সন্ত্রাসের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা আমাদের কর্মীদের যথেষ্ট নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছি। যার দরুণ বহু বিজেপি কর্মী তৃণমূলে যোগদান করেছেন প্রাণ বাঁচানোর তাগিদে।”

আরও পড়ুন-আলাদা উত্তরবঙ্গের দাবীতে ঘৃতাহুতি দিয়েও একসাথে থাকার বার্তা দিলীপ ঘোষের।

এছাড়াও তৃণমূল থেকে বিজেপিতে এসে আবার তৃণমূলে ফেরার ইচ্ছা প্রকাশ করা নেতাদের উদ্দেশ্যে বাবুল সুপ্রিয় লিখেছেন যে, “নির্বাচনের ঠিক পূর্ববর্তী সময়ে কিছু পাওয়ার আশায় যে সমস্ত নেতারা বিজেপিতে এসেছিলেন তারা বিজেপিতে আশায় বিজেপির কোন উপকার হয় নি বরং ক্ষতিই বেশি হয়েছে।এই বানের জলে ভেসে আসা নেতারা পৃথিবীতে এসে বিজেপি যথেষ্ট ক্ষতি সাধন করেছেন।”

Related Articles

Back to top button