“বাংলার বাঘিনীর পাশে আছি”- টুইট করে‌ বললেন শিবসেনা প্রধান সঞ্জয় রাউত

“বাংলার বাঘিনীর পাশে আছি”- টুইট করে‌ বললেন শিবসেনা প্রধান সঞ্জয় রাউত

নিজস্ব প্রতিবেদন: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভার উপর ২৪ ঘন্টার নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন। গতকাল সোমবার রাত আটটা থেকে আজ মঙ্গলবার রাত আটটা পর্যন্ত এই নির্দেশিকা কার্যকর থাকবে। যার দরুন বেশকিছু জনসভা বাতিল করতে হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী কে।

শীতলকুচির ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য করেছিলেন যে, “স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নির্দেশে কাজ করছে নির্বাচন কমিশন, সেই সাথে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর নির্দেশে এই নিরীহ মানুষের উপর গুলি চালিয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী।“মুখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্যকে সম্পূর্ণ নির্বাচনী বিধি ভঙ্গকারী বলে উল্লেখ করে নির্বাচন কমিশন ২৪ ঘন্টার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর সমস্ত নির্বাচনী কার্যবিধি বাতিল করেছে।

আরও পড়ুন-“বাঙালি হ‌ওয়ার জন্যেই খুন করেছে কেন্দ্রীয় বাহিনী”- চাঞ্চল্যকর মন্তব্য তৃণমূল সাংসদ অভিষেকের

এদিকে নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্তকে সম্পূর্ণ সংবিধানিক এবং অগণতান্ত্রিক বলে উল্লেখ করে কমিশনের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে গান্ধী মূর্তির পাদদেশে আজ বেলা বারোটার পর ধরনায় বসেছেন মুখ্যমন্ত্রী। ধরণায় বসেই ছবি এঁকেছেন তিনি।এদিকে নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করেছেন বেশ কয়েকজন বিদ্বজ্জনেরা। ‌ যেমন গায়ক কবীর সুমন বলেছেন, “নির্বাচন কমিশনের এই ফরমান অত্যন্ত হাস্যকর। ‌

কমিশনের স্বাতন্ত্র্য আজ বিপন্ন হয়েছে।”সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেছেন, “ধর্না দেওয়াও তো একধরণের প্রচার‌ই বলা যেতে পারে।”এদিকে শিব সেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত টুইট করে বলেছেন, “বিজেপির অঙ্গুলিহেলনে নির্বাচন কমিশন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্বাচনী কর্মসূচির উপর ২৪ ঘন্টা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। আমরা বাংলার বাঘিনীর পাশে রয়েছি।”