নিউজপলিটিক্সরাজ্য

কেএমসির মধ্যে কিভাবে প্রভাব বিস্তার করেছিলো ভুয়ো আইএএস দেবাঞ্জন? ঘনীভূত হচ্ছে রহস্য।

নিজস্ব প্রতিবেদন: কসবার ভুয়ো ভ্যাকসিন কান্ডে উত্তাল সারা রাজ্য। একজন ভুয়ো আইএএস পরিচয়ে কিভাবে পুলিশের নাকের ডগায় এরকম অসামাজিক কাজকর্ম চালিয়ে যেতে পারে তা দেখে অবাক হচ্ছেন মানুষজন। যাদবপুরের তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তীর তৎপরতায় কসবার ভুয়ো ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পের মাথা দেবাঞ্জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কিন্তু দেবাঞ্জন দেবের গ্রেপ্তারির সাথে সাথে উঠে আসছে একাধিক রহস্য।

দেবাঞ্জনের সাথে একাধিক তৃণমূল নেতা মন্ত্রীদের ওঠা বসা ছিল বলে দাবি করেছে বিজেপি। তৃণমূল মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম সহ সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং আরো বেশ কয়েকজন তৃণমূল নেতার সাথে দেবাঞ্জনের বেশ কয়েকটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়েছে। বিজেপির টুইটার হ্যান্ডেল থেকেও একটি ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে ক্যাপশান দেওয়া হয়েছে, “ছবির ব্যক্তিটি হলেন দেবাঞ্জন দেব, ভুয়ো আইএএস অফিসার এবং জাল ভ্যাকসিন কাণ্ডে পুলিশের হাতে ধৃত।

আরও পড়ুন-“আইএস‌এফকে জোটসঙ্গী করে কি ঐতিহাসিক ভুল হল?” – সিপিএম রাজ্য কমিটির বৈঠকে উঠলো প্রশ্ন।

শাসক দলের প্রত্যক্ষ মদত না থাকলে এই জালিয়াতি করা সম্ভব নয়।”দেবাঞ্জন কে অফিসাররা জেরা করে জানতে পেরেছেন, প্রথমে করোনার ভয়াবহ পরিবেশ শুরু হতেই পিপিই কিট, মাস্ক, স্যানিটাইজারের ব্যবসা শুরু করেন দেবাঞ্জন, মেহেতা বিল্ডিং থেকে ঐ সমস্ত সামগ্রী সস্তায় কিনতো সে। তারপর তার অসামাজিক কার্যকলাপ যাতে প্রকাশিত না হয় তার জন্য কলকাতা কর্পোরেশনের মাথাদের সাথে ঘনিষ্ঠতা তৈরির চেষ্টা করে সে। প্রথমেই এক চিকিৎসক নেতার সাথে ঘনিষ্ঠতা তৈরি করে কোভিড অতিমারিতে মাস্ক, স্যানিটাইজার বন্টন করেছিলো সে।

আরও পড়ুন-ভুয়ো ভ্যাকসিন ক্যাম্প চালানো দেবাঞ্জনের সাথে একাধিক তৃণমূল নেতা মন্ত্রীর যোগাযোগ। ছবি প্রকাশ করে দাবী বিজেপির

নিজেকে কন্ট্রাক্টর পরিচয় দিয়েছিল সে। তারপর কলকাতা কর্পোরেশনের বিশেষ কমিশনার তাপস চৌধুরীর স‌ই করে সে বেশ কিছু বেসরকারি ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খুলেছিল। এছাড়াও কলকাতা কর্পোরেশন থেকে বেশকিছু কন্ট্রাক্ট আদায় করেছিল সে।কার সাহায্যে কলকাতা কর্পোরেশনের অন্দরমহলে সে এতটা প্রভাব বিস্তার করতে পেরেছিল সেই ব্যক্তি কে ধরার জন্য তদন্ত করছে পুলিশ।

আরও পড়ুন-“সিঁদুর পরে ভারতীয় সংস্কৃতির অপমান করেছে নুসরত”- কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের।

দেবাঞ্জন কে চেনা করে পুলিশ জানতে পেরেছে জুওলজি নিয়ে পড়াশোনা করেছে দেবাঞ্জন। তারপরে জেনেটিক্স নিয়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি হয়েছিল। কিন্তু মাঝপথে সেই পড়া ছেড়ে দিয়েছিলো দেবাঞ্জন, এবং পড়াশোনাতেও যবনিকা টেনে দিয়েছিলো। কয়েকটি মিউজিক ভিডিও এবং অ্যালবাম বানিয়েছিলো সে।

তার বাবা মনোরঞ্জন দেব একজন আবগারি অফিসার।

Related Articles

Back to top button