“হিটলারের ছোটো ভাই নরেন্দ্র মোদী।”- প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

“হিটলারের ছোটো ভাই নরেন্দ্র মোদী।”- প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

নিজস্ব প্রতিবেদন: একুশের ভোটে বাংলায় তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতা দখল করেছে তৃণমূল। তৃণমূলের অন্দরে বেশকিছু রদবদল করা হয়েছে। গত শনিবার তৃণমূলের বড়ো ধরণের বৈঠক হয়েছে তৃণমূলের ভবনে। এই বৈঠকে বেশ কিছু রদবদল করা হয়েছে।

দলের মধ্যেই সাংগঠনিক পরিবর্তন হওয়ায় যথেষ্ট খুশি হয়েছেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এর পরেই তিনি তীব্র আক্রমণ শানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে।দলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড করা হয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কে। তার উপরে ন্যস্ত করা হয়েছে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সম্পাদকের গুরুদায়িত্ব।

আরও পড়ুন-বাংলায় ভোট পরবর্তী হিংসার অভিযোগে বিধানসভার ভেতরে এবং বাইরে আন্দোলন করার হুঁশিয়ারি দিলীপ ঘোষের।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কে শুভেচ্ছা জানিয়ে তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “অভিষেক খুব ভালো কাজ করেছে। বর্তমানে রাজনীতিতে ও অনেক পরিণত হয়ে উঠেছে। আগামীদিনে সারা ভারতের মধ্যে ও বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ হিসাবে পরিচিত হবে। সকলকে সম্মান করে চলে অভিষেক।

আরও পড়ুন-“গরুর গাড়ির আবার হেডলাইট”- অভিষেকের পদোন্নতিতে কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতা তথাগত রায়। প্রতিক্রিয়া তৃণমূলের।

রাজনৈতিক আঙিনায় যত এরকম ভালো মানুষ আসবেন, তত‌ই ভালো হবে।“এর পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রতি আক্রমণ শানিয়ে কল্যাণ বাবু বলেছেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী হলেন সমগ্র ভারতবর্ষের সবথেকে ব্যর্থ একজন প্রধানমন্ত্রী। বর্তমানে তিনি হিটলারের ছোট ভাই রূপে পরিগণিত হচ্ছেন । তার কারণেই সারাদেশের মানুষ দুর্দশার মধ্যে পড়েছে।

আরও পড়ুন-“বেসুরো ন‌ই আমি।”- চাপের মুখে সাফাই দিলেন সৌমিত্র খাঁ।

উনি নিজেকে ছাড়া অন্য কিছু ভাবেন না। আগামী ২০২৪ এ তাঁকে এই দেশ থেকে হটিয়ে দিতে হবে।”