সৌরভ গাঙ্গুলির বিয়ে দিয়েছিলেন যে গুরুদেব, তিনি নিশ্চিত জানালেন কবে ভারত থেকে যাবে করোনা!

করোনা নিয়ে ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ছে একাধিক ভবিষ্যৎবাণী। দেশ-বিদেশের বহু জ্যোতিষী বিভিন্ন রকম মতবাদ দিয়েছেন। তাদের মধ্যে কেউ বলেছেন এই এইবার এই মুহূর্তে শেষ হবে করোনা, আবার কেউ বলেছেন এত শীঘ্রই মানবসমাজ করোনার অভিশাপ থেকে মুক্তি পাবে না। চেন্নাইয়ের এক বিজ্ঞানী তো রীতিমতো সাংবাদিক সম্মেলন করে ঘোষণা করে দিলেন একুশে জুন মহাজাগতিক সূর্য গ্রহণের পরে পৃথিবী থেকে বিদায় নেবে করোনা ভা-ই-রা-স।

সংকট কাটবে মানব জীবনের। যদিও সেই ভবিষ্যৎবাণী ও ব্যর্থ পরিণত হয়েছে। এবার ভবিষ্যৎবাণী দিলেন এক বাঙালি জ্যোতিষী এবং শাস্ত্রজ্ঞ শ্রীযুক্ত হরিপদ শাস্ত্রী। জ্যোতিষ বিদ্যা ছাড়াও তার অপর একটি পরিচয় আছে, তিনি শিক্ষক, শাস্ত্রজ্ঞ এবং পুরোহিত। ভারতীয় অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলির বিবাহ কার্য সম্পন্ন করেছিলেন হরিপদ বাবু। সৌরভ গাঙ্গুলি পরিবারের গুরুদেব তিনি।

আরও পড়ুন – ভয়’ঙ্কর প্রকৃতির রোষের মুখে চীন, ক্ষ’তিগ্রস্ত প্রায় দেড় কোটির বেশি মানুষ

সম্প্রতি তিনি তার শতবর্ষ জন্মদিন পালন করলেন। রীতিমতন পশ্চিমি কায়দায় কেক কেটে, কেকের ওপর একশটি মোমবাতি নিভিয়ে তিনি তার জন্মদিন পালন করেন। গুরুদেবের শীষ্য এবং ছাত্ররা অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে তার জন্মদিন পালন এবং আয়োজন করেছিলেন। গুরুদেব হরিপদ শাসস্ত্রী মহাশয় অবশ্য পাটভাঙা ধুতি-পাঞ্জাবির সঙ্গে মাস্ক, হেড ক্যাপ, গ্লাভস সহ সবরকম করোনা কবচ পরে তবেই জনসম্মুখে এসে তার জন্মদিন পালন করেন।

আরও পড়ুন – ফের নিম্মচাপের ধাক্কা বাংলায়, আগামী কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই পাঁচ জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিলো আবহাওয়া দপ্তর

প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলীর বাড়ির সূত্রে খবর সৌরভ গাঙ্গুলীর জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়া থেকে শুরু করে সৌরভ গাঙ্গুলীর প্রথম সেঞ্চুরি এমনকি ভারতীয় অধিনায়ক হয়ে ওঠার ব্যাপারে আগে থেকেই ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি পরিবারের গুরুদেব। গত রবিবার গুরু পূর্ণিমার দিন মহারাজের শতবর্ষ অতিক্রান্ত গুরুর ভবিষ্যৎবাণী, পুজোর আগেই নির্মূল হবে করোনা।

আরও পড়ুন – দুধে জল মেশানো আছে কি না বুঝবেন কিভাবে? জেনে নিন একটি সহজ উপায়

বাঙালি জাতি পুনরায় দুর্গাপূজাকে আনন্দের সঙ্গে উদযাপন করতে পারবেন। উল্লেখ্য ভারতের বৈজ্ঞানিক এবং গবেষকরা 15 ই আগস্ট এর মধ্যে কোন ভা-ই-রা-সে-র প্র-তি-ষে-ধ-ক জনসমক্ষে আনবে বলে ঘোষণা করেছে সর্বভারতীয় মেডিকেল কাউন্সিল। সেক্ষেত্রে গুরুদেবের ভবিষ্যৎবাণী যদি নাও মেলে তাহলেও পুজোর আগে করোনা ভাইরাস নির্মূল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এখানে আপনার মতামত জানান