নিউজ

এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।

এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-রাজ্য সরকার বা কেন্দ্রীয় সরকারের কোন প্রকল্পের সুবিধা গ্রহণ করতে গেলে অতি অবশ্যই গ্রাহকদেরকে ব্যাংকে যেতে হতো এতদিন ধরে ।সেই ব্যাংকে গিয়ে লাইনে দাড়াতে হতো। তার পরে কখনও কখনও আবার সময়ের অভাবে সম্পূর্ণ কাজ না করে বাড়ি ফিরে আসতে হতো। পরদিন আবার যেতে হতো ব্যাংকে। তবে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চলেছে সাধারণ গ্রাহকরা ।কারণ প্রধানমন্ত্রী অটল পেনশন যোজনা মাধ্যমে যে সমস্ত গ্রাহকরা ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট খুলতে চলেছেন তাদেরকে যাওয়ার কোন দরকার নেই।

এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।

আমরা জানি যে প্রধানমন্ত্রী অটল পেনশন যোজনা মাধ্যমে বার্ষিক 5000 টাকা এবং 10 হাজার টাকা করে পেনশন দেবার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছিল কিন্তু ব্যাংকে কিভাবে এই প্রকল্পের সুবিধা পাওয়া যাবে তা জেনে নিন এক নজরে।PFRDA বা পেনশন ফান্ড রেগুলেটরি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথোরিটি গত 27 অক্টোবর একটি সার্কুলার জারি করেছে। যে সার্কুলার এর মাধ্যমে তারা জানিয়েছে যে ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট খোলা এবং কেওয়াইসি পদ্ধতিকে সরলীকরণ করার জন্য এই ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে ।এবার থেকে গ্রাহকদের কার ব্যাংকে গিয়ে কষ্ট করতে হবেনা।

এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।

বরং বাড়িতে বসেই ই কেওয়াইসি এর মাধ্যমে তারা তাদের ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবে।এরপর আধার সংক্রান্ত বিবরণ, ডেমোগ্রাফিক তথ্য, পেনশনের অঙ্ক, পেমেন্ট পদ্ধতি, মনোনীত ব্যক্তি বা নমিনির নাম, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সহ অন্যান্য আরো প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করে নেওয়া হবে ।উপরোক্ত বিবরণ গুলি ব্যাঙ্কের কাছে জমা পড়লেই আবেদনকারীর অ্যাকাউন্টে অটো-ডেবিট ফিচার সক্রিয় হয়ে যাবে।

এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।

এরপর থেকে এপিওয়াই পরিষেবা প্রদানকারীরা আবেদনকারীর বেছে নেওয়া পেনশনের অঙ্ক ও অন্যান্য ভবিষ্যত-পরিষেবাগুলি সরবরাহ করবেন। এজন্য প্রতিটি পরিষেবা প্রদানকারী ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের কাছে e-APY সম্পর্কিত লিঙ্ক তাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ।এবং এই ব্যবস্থার ফলে সাধারণ মানুষের যে চরম সুবিধা হলো সেটি নতুন করে বলার আর কোন অপেক্ষা রাখে না।

এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।
এবার থেকে এই কাজগুলি করার জন্য দরকার নেই ব্যাংকে গিয়ে লাইন দেওয়ার! বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সব কাজ! জানুন বিস্তারিত।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button