আগামী শনিবার থেকেই কোউইন অ্যাপ এবং পোর্টালে টীকার জন্য আবেদন করতে পারবেন ১৮ ঊর্ধের ছেলেমেয়েরা।

আগামী শনিবার থেকেই কোউইন অ্যাপ এবং পোর্টালে টীকার জন্য আবেদন করতে পারবেন ১৮ ঊর্ধের ছেলেমেয়েরা।

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভারতে ভয়াবহ পরিস্থিতি সূচনা করেছে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় পর্যায়। এখনো পর্যন্ত সমগ্র দেশে দৈনিক সংক্রমণ ৩ লক্ষ পার হয়ে গিয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছে মোট ৩ লক্ষ ১৪ হাজার ৮৩৫ জন মানুষ। ২৪ ঘন্টায় মারা গিয়েছেন ২,১০৪ জন আক্রান্ত। ভারতে প্রতি মিনিটে আক্রান্ত হচ্ছেন ২১৯ জন যা অত্যন্ত ভয়াবহ পরিস্থিতির সূচনা করেছে।

এখনো পর্যন্ত সারা ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৫৯ লক্ষ ৩০ হাজার ৯৬৫ জন। মৃত্যু ঘটেছে ১ লক্ষ ৮৪ হাজার ৬৭২ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ কোটি ৩৪ লক্ষ ৫৪ হাজার ৮৮০ জন।ভারতে বর্তমানে করোনার দুটি ভ্যাকসিন চালু রয়েছে, একটি হল কোভ্যাক্সিন এবং অন্যটি হল কোভিশিল্ড। এছাড়াও রাশিয়ার তৈরি ভ্যাকসিন কেউ ছাড়পত্র দিতে চলেছে কেন্দ্র। ভারতে বৃদ্ধিপ্রাপ্ত করোনার ব্যাপকতার পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় সরকার ঘোষণা করেছিল যে আগামী ১ লা মে থেকেই করোনার ভ্যাকসিন নিতে পারবে ১৮ উত্তীর্ণ সকলেই।

আরও পড়ুন-অশোকনগরে এবং মঙ্গলকোটে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে গুলি চালানোর অভিযোগ। খারিজ করল নির্বাচন কমিশন।

দ্বিতীয় দফায় বলা হয়েছিলো ৪৫ বছর বয়সীদের পর থেকে এই টীকা দেওয়া হবে।ন্যাশনাল হেলথ অথরিটির চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার আর‌এস শর্মা জানিয়েছেন যে কেন্দ্রীয় সরকারের কোউইন অ্যাপ বা পোর্টালের মাধ্যমে আগামী ২৪ শে এপ্রিল থেকেই নিজেদের নাম নথিভুক্তিকরণ করতে পারবেন।

আর এস শর্মা জানিয়েছেন , তৃতীয় পর্যায়ে কোভিডের ভ্যাকসিন আরো বেশী পরিমানে দেওয়া হতে চলেছে। কারণ ১৮ ঊর্ধে জনসংখ্যা যথেষ্ট বেশী। জানা গিয়েছে, তৃতীয় পর্যায়ে রাশিয়ার তৈরি স্পুটনিক ভি টীকাটিও বেশ কিছু কেন্দ্রে দেওয়া হতে পারে। টীকাকরণে কোন ব্যক্তির শরীরে কোনো সমস্যা দেখা যাচ্ছে কিনা তা কড়া পর্যবেক্ষণে রাখা হবে । এই পোর্টালটিতে বেসরকারি সংস্থার কর্মীদের ফোন নম্বর দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।