নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“সিপিএম অনেক চেষ্টা করেও পারেনি”- ত্রিপুরার বিপ্লব দেব প্রশাসনকে কটাক্ষ ফিরহাদ হাকিমের

নিজস্ব প্রতিবেদন: আগামী ১৬ ই আগস্ট তৃণমূল কংগ্রেস সারা রাজ্য জুড়ে খেলা হবে দিবসের সূচনা করতে চলেছে। এবার পশ্চিমবঙ্গে এই খেলা হবে দিবস পালনের পাশাপাশি প্রতিবেশী রাজ্য ত্রিপুরাতেও খেলা হবে দিবস পালন করতে তৎপর হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। সম্প্রতি ত্রিপুরার মাটিতে বিজেপির দ্বারা আক্রান্ত হয়েছিলেন দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহা এবং জয়া দত্তরা। এই ঘটনায় রাজ্য রাজনীতিতে যথেষ্ট চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছিল।

এই ঘটনায় আবার নতুন করে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, কুনাল ঘোষ সহ পাঁচজন তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে ত্রিপুরার খোয়াই থানার পুলিশ । তৃণমূল জানিয়েছে আগামী ১৬ ই আগস্ট আবার ত্রিপুরার মাটিতে রওনা হবেন দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহা, জয়া দত্তরা। ত্রিপুরায় আগামী ১৬ ই আগস্ট এই খেলা হবে দিবস পালনের জন্য জোর কদমে প্রস্তুতি পর্বের সূত্রপাত হয়ে গিয়েছে। ত্রিপুরার তৃণমূল সংগঠন এই কর্মসূচি পালন করতে বদ্ধপরিকর।

আরও পড়ুন-“উনি একাই জলে”- ঘাটালে একা বন্যার জলে দাঁড়িয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশ দিয়েছেন যে, আগামী ১৬ ই আগস্ট ত্রিপুরার মাটিতে খেলা হবে দিবসের আনুষ্ঠানিক সূচনায় অংশগ্রহণ করবেন, তৃণমূলের যুব নেতা এবং নেত্রীবৃন্দ।এই আবহের মধ্যে ত্রিপুরার বিপ্লব দেবের সরকারকে ব্যাপক কটাক্ষ করলেন ফিরহাদ হাকিম। ত্রিপুরা পুলিশ ব্রাত্য বসু, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, দোলা সেন, কুণাল ঘোষের বিরুদ্ধে এফ‌আইআর দায়ের করেছে। এই বিষয়ে যথেষ্ট ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ফিরহাদ হাকিম।

তিনি বলেছেন,”বিজেপি হল একটি প্রতিহিংসা পরায়ণ সংগঠন। ‌ ওদের একটাই পদ্ধতি। মারধর করা, ভয় দেখানো, পুলিশ লাগিয়ে দেওয়া। এখানে যেমন বাংলায় সিবিআই, ইডি ইত্যাদি সব দেখিয়ে তৃণমূলকে আটকাতে চাইছে।

আরও পড়ুন-“দাদাগিরি, তোলাবাজি একদমই নয়”- দুয়ারে সরকার শুরুর আগেই সতর্ক করলো নবান্ন

সিপিএম অনেক চেষ্টা করেছিল কিন্তু ওরাও তৃণমূলকে আটকাতে পারেনি। ত্রিপুরায় বিপ্লব দেবের ক্ষমতা শেষ হতে চলেছে এটা অবশ্যম্ভাবী। আগামী ২০২৩ এই ত্রিপুরার বুক থেকে বিজেপির বিদায় আসন্ন। কাউকে যখন অন্যায় ভাবে থানায় ধরে রাখা হচ্ছে তখন তাকে ছাড়ানোর জন্য থানায় অবশ্যই যেতে হবে।

যখন অভিষেকের গাড়িতে হামলা হলো থানার বাইরে বিজেপির সমর্থকরা ব্যাপক জমায়েত করল তখন ত্রিপুরার বিজেপি সরকারের করোনা বিধি লাগু হয়নি কেন?”

Related Articles

Back to top button