নিউজপলিটিক্সরাজ্য

বিজেপির মশাল মিছিলকে নাটক বলে কটাক্ষ করলেন ফিরহাদ হাকিম

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনা আবহে আগামী ১৫ ই আগস্ট পর্যন্ত রাজ্যে জারি রয়েছে বিধিনিষেধ। এই বিধিনিষেধে বেশ কিছু ছাড় দেওয়া হলেও রাজনৈতিক সমাবেশের উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে। কিন্তু এই বিধিনিষেধ অমান্য করেই অনেক সময়েই দেখা যাচ্ছে ধর্মীয় এবং রাজনৈতিক সমাবেশ হয়ে চলেছে।এদিকে গতকাল বিজেপির মশাল মিছিল আটকে দিয়েছে কলকাতা পুলিশ।

জানা গিয়েছে বিজেপির এই মশাল মিছিল এগিয়ে আসছিল উত্তর কলকাতার সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ থেকে দক্ষিণ কলকাতার ভবানীপুর বেহালার দিকে । তখনই এই মিছিল কে আটকায় কলকাতা পুলিশ। মিছিল আটকালে বিজেপি সমর্থকদের সাথে কলকাতা পুলিশের রীতিমতো সংঘর্ষ বেধে যায়। ধস্তাধস্তিতে ভাঙ্গা হয় পুলিশের ব্যারিকেড।

আরও পড়ুন-ইউপিএসসি’র প্রশ্নপত্রে উল্লেখ করা হল পশ্চিমবঙ্গের ভোট সন্ত্রাসের। তৃণমূল বিজেপির তুঙ্গে দ্বৈরথ

করোনা পরিস্থিতিতে আইন-শৃঙ্খলা ভাঙার দায়ে বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতাকর্মীদের আটক করেছে কলকাতা পুলিশ।গতকাল ৯ ই আগস্ট থেকে আগামী ১৬ ই আগস্ট পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গ বাঁচাও সপ্তাহ পালনের আহ্বান জানিয়েছে বিজেপি । এই মর্মে বেশকিছু কর্মসূচি তারা গ্রহণ করেছে। গতকাল এই কর্মসূচির প্রথম দিন ছিল তাই এই উপলক্ষে কলকাতার বেশ কিছু জায়গায় মশাল মিছিল বের করেছিলেন বিজেপির নেতা কর্মীরা।

আরও পড়ুন-সংসদে ত্রিপুরা নিয়ে তৃণমূলের সাথে বিক্ষোভ দেখালেন সুনীল মন্ডল। সুর নরম তৃণমূলের

কিন্তু বিভিন্ন জায়গাতে তাদের এই মিছিল এগিয়ে যেতে বাধা দিয়েছে কলকাতা পুলিশ। কারণ এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে রাজনৈতিক সমাবেশ করলে সেটা সমাজের পক্ষে যেমন ক্ষতিকর তেমনি প্রতিটি মানুষের পক্ষে যথেষ্ট ক্ষতিকর। ‌ তাই এই মিছিল শুরুতেই বাধা দিয়েছে কলকাতা পুলিশ। ‌ বিভিন্ন জায়গায় মিছিলে অংশগ্রহণকারী বিজেপি কর্মী সমর্থকদের সাথে কলকাতা পুলিশের খণ্ডযুদ্ধ বেঁধে গিয়েছে।

এদিকে রাজ্য বিজেপির এই মশাল মিছিল কে নাটক বলে কটাক্ষ করেছেন বর্তমান পরিবহন মন্ত্রী তথা কলকাতা পুরসভার চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম। যদিও তার এই কটাক্ষের এখনো কোনো উত্তর দেয়নি রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব।

Related Articles

Back to top button