ক্যাপিটাল দাঙ্গা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে ফেসবুক দু বছরের জন্য নিষিদ্ধ করলো ডোনাল্ড ট্রাম্পকে।

ক্যাপিটাল দাঙ্গা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে ফেসবুক দু বছরের জন্য নিষিদ্ধ করলো ডোনাল্ড ট্রাম্পকে।

নিজস্ব প্রতিবেদন: আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রথম থেকেই স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে তিনি কড়া ভাষায় আক্রমণ করে থাকেন বিরোধীদের। বারবার বিভিন্ন বিতর্কিত মন্তব্য করে সংবাদ শিরোনামে জায়গা করে নেন তিনি। নির্বাচনে হেরে গিয়েও হোয়াইট হাউস ছাড়তে অনড় ছিলেন তিনি । বর্তমানে আমেরিকার প্রেসিডেন্টের পদ অলংকৃত করেছেন জো বাইডেন।

তাঁর প্রেসিডেন্ট হওয়ার পরে বিভিন্ন ইস্যুতে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরকারের প্রতি তীব্র আক্রমণ ছুঁড়ে দেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবার তার সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টের জন্য কড়া ব্যবস্থা নিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।জানা গিয়েছে প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অন্তত ২ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে দিয়েছে ফেসবুক। জানা গিয়েছে এই বছর কত জানুয়ারি মাসে ক্যাপিটাল দাঙ্গার আবহে মন্তব্য করার জন্য ফেসবুক থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য সাসপেন্ড করে দেওয়া হয়েছিল

আরও পড়ুন-“কে কেন দেখা করতে গিয়েছিলেন জানিনা”- হাসপাতালে মুকুলের স্ত্রীকে দিলীপ ঘোষের দেখতে যাওয়া নিয়ে মন্তব্য মুকুলের।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচন পর্বে তিনি বেশকিছু উস্কানিমূলক মন্তব্য করেছিলেন যার দরুন তার অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড করে দিয়েছে ফেসবুক । ফেইসবুক জানিয়েছে যে ৭ ই জানুয়ারি , ২০২১ থেকে কার্যকর হওয়া এই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে আগামী ২০২৩ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত। ফেসবুকের ভাইস-প্রেসিডেন্ট বলেছেন, “প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি উপর বিভিন্ন কারণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন-ভোটের পরেই আবার ময়দানে নামছেন তৃণমূলের ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোর।

তিনি যে পদক্ষেপগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিয়েছিলেন তা আমাদের বিধি নিষেধ লঙ্ঘন করেছে বলে দেখা গিয়েছে। তাই তার পদক্ষেপের বিরুদ্ধে আমরা কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছি। তবে যখন মনে হবে যে জনগণের নিরাপত্তার বিষয়টি ঝুঁকিহীন, তখন আবার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট এর উপর জারি করা এই নিষেধাজ্ঞা আমরা তুলে নেবো।”