নিউজপলিটিক্স

গুয়াহাটি সারদা মামলায় জামিন মিললো দেবযানীর

নিজস্ব প্রতিবেদন: একটা সময় সারা দেশজুড়ে চিটফান্ডের কারবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছিলো। অল্প সময়ে ভালো টাকা লাভের আশায় , আকর্ষণীয় রিটার্নের আশায় নিজেদের কষ্টার্জিত টাকা চিটফান্ডের হাতে দলে দলে তুলে দিয়েছিলেন মানুষ জন। এই চিটফান্ডের মধ্যে অন্যতম ছিলো সারদা। একটা সময় এই চিটফান্ড কোম্পানি বাংলার মাটিতে রীতিমত ফুলেফেঁপে উঠেছিলো।

রিয়েল এস্টেট থেকে শুরু করে মানি মার্কেট, কৃষি, অটোমোবাইল সবেতেই বিনিয়োগ করেছিলো সারদা কোম্পানি। এছাড়াও তৎকালীন সময়ে মার্লিন, প্রয়াগ, অ্যালকেমিস্টের মতো অনেক সংস্থাই রাজ্যের মাটিতে ব্যবসা চালাচ্ছিলো। কিন্তু সমস্ত কিছু ওলট পালট হয়ে যায় সারদা কোম্পানি জালিয়াতি মামলায়।

সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেন এবং কোম্পানির ডিরেক্টর দেবযানী মুখোপাধ্যায় গা ঢাকা দিয়েছিলেন। কোটি কোটি টাকা তছরুপের অভিযোগ উঠেছিলো এই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে। এই মামলার তদন্তভার হাতে নিয়েছিলো সিবিআই। এই মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন মদন মিত্র, কুণাল ঘোষ। ইতিমধ্যেই তারা জেল খেটে জামিন পেয়েছেন।

আরও পড়ুন –“আমার পছন্দ না হলে আপনার ছবি সার্টিফিকেটে কেন নেবো?”- টীকা শংসাপত্রে প্রধানমন্ত্রীর ছবি প্রসঙ্গে তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী

সুদীপ্ত সেন এখনো জেলে রয়েছেন। তিনি বেশ কয়েকবছর আগে জেল থেকে একটি চিঠি লিখেছিলেন, এই চিঠিতে তিনি সারদা কেলেঙ্কারির জন্য বেশ কিছু তৃণমূল নেতা মন্ত্রীকে দায়ী করেছেন। সারদার অন্যতম পদে ছিলেন দেবযানী মুখোপাধ্যায়। তিনি সাধারণ রিসেপশনিস্ট থেকে কোম্পানির ডিরেক্টর হয়ে উঠেছিলেন। কয়েকদিন আগেই তিনি কলকাতা হাইকোর্ট থেকে সারদা মামলায় জামিন পেয়েছেন।

এবার গুয়াহাটি মামলায় জামিন পেয়েছেন দেবযানী মুখোপাধ্যায় । দেবযানীর আইনজীবী অয়ন চক্রবর্তী বলেছেন, “মাননীয় আদালত এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট এবং আমাদের সমস্ত সবাই শুনে দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের জামিন মঞ্জুর করেছেন। দীর্ঘ সময় ধরে জেল হেফাজতে রয়েছেন দেবযানী মুখোপাধ্যায়। অবশেষে জামিন পাওয়ায় কিছুটা স্বস্তি পেয়েছেন তিনি।

Related Articles

Back to top button