নিউজ

“যত তাড়াতাড়ি সম্ভব অক্সিজেনের ব্যবস্থা করুন”- কেন্দ্রকে কড়া ধমক দিল্লি হাইকোর্টের

নিজস্ব প্রতিবেদন: আজ থেকেই দেশের রাজ্যগুলিতে ১৮ বছর বয়সীদের ঊর্ধ্বে টিকাকরণের কথা ছিল। কিন্তু ভ্যাকসিন অপ্রতুল হওয়ায় বেশ কিছু রাজ্যে আজকে শুরু হয়নি টিকাকরণ। ‌ সিরাম ইনস্টিটিউট জানিয়েছিল, তাদের ভ্যাকসিন তারা কেন্দ্রকে বিক্রি করবে ১৫০ টাকায় এবং রাজ্যগুলিকে ৪০০ টাকায় বিক্রি করবে। চাপের মুখে তারা রাজ্যগুলিকে ৩০০ টাকায় ভ্যাকসিন‌বিক্রি করবে বলে জানায়।

ভ্যাকসিনের দামের এই তারতম্য নিয়ে গতকাল বিরক্তি প্রকাশ করেছে সুপ্রিম কোর্ট। কেন্দ্রীয় সরকারকে বেশ কয়েকটি প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় সুপ্রিম কোর্টের কাছে। সুপ্রিম কোর্ট জানতে চেয়েছে যে “কেন্দ্র কেন ১০০% ভ্যাকসিনের ডোজ কিনে নিচ্ছে না ? রাজ্য এবং কেন্দ্রের কাছে ভ্যাকসিনের এই দামের তারতম্যের পিছনে কি যুক্তি রয়েছে ? স্বাধীনতার পরে আমরা ন্যাশনাল ইমিউনাইজেশন মডেল অনুসরণ করে কাজ করছি। কিন্তু এরপরে গরিব মানুষগুলো টীকার জন্য কীভাবে অর্থের জোগাড় করবেন সেই বিষয়টি ভেবে দেখা হচ্ছে না।”

আরও পড়ুন-“পুরো লকডাউন না করে যাতে করোনাকে আটকানো যায় সেই চেষ্টা করতে হবে।”- বললেন দিলীপ ঘোষ

দেশের এই ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতিতে আরেকটি ভয়াবহ সমস্যা হচ্ছে অক্সিজেনের ঘাটতি। এবার এই অক্সিজেনের ঘাটতি প্রসঙ্গে দিল্লি হাইকোর্টের তোপের মুখে পড়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। দিল্লি হাইকোর্ট শনিবার বাটরা হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাবে ৮ জন রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় রীতিমতো কড়া তিরস্কার করেছে কেন্দ্রীয় সরকারকে।

বিচারকরা ক্ষুব্ধ ভাষায় কেন্দ্রকে জানিয়েছেন, “এনাফ ইজ এনাফ, দিল্লিতে মানুষ মারা যাচ্ছে, আপনারা কি আমাদের চোখ বুজে থাকতে বলছেন? অবিলম্বে ৪৯০ মেট্রিক টন অক্সিজেন দিল্লিতে দ্রুত পৌঁছানোর ব্যবস্থা করুন, না হলে আদালত অবমাননার মত অভিযোগ উঠবে আপনাদের বিরুদ্ধে।” এর আগেও দিল্লি হাইকোর্ট কেন্দ্রকে নির্দেশ দিয়েছিল অবিলম্বে দিল্লির বুকে অক্সিজেনের বন্টন করা হোক।

Related Articles

Back to top button