নিউজআন্তর্জাতিকটেক নিউজ

“সংস্কার করে দেওয়া হবে ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির।”- পাকিস্তানের হিন্দু মন্দির ভাঙচুর করার ঘটনায় প্রতিক্রিয়া দিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়ায় পাকিস্তানে মাটি থেকে একটি অত্যন্ত লজ্জাজনক ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে। একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে পাকিস্তানের একটি হিন্দু মন্দিরের তীব্র ভাঙচুর চালাচ্ছে পাকিস্তানের সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমান জনগণ। এই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে পাকিস্থানে অবস্থিত একটি হিন্দু মন্দিরে কাতারে কাতারে ঢুকে পড়েছে বিক্ষুব্ধ জনতা। তারপর নির্বিচারে মন্দিরের বিগ্রহ সহ অন্যান্য জিনিসপত্র গুলি নিমেষের মধ্যে ভাঙচুর করে দিচ্ছে।

এর আগেও পাকিস্তানে একাধিক হিন্দু মন্দিরে, সংখ্যালঘু হিন্দুদের উপরে অত্যাচার চালানো হয়েছে।এই ঘটনায় সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে বহু মানুষ পাক প্রশাসনকে ধিক্কার জানিয়েছে। ভারত‌ও এই ঘটনার কড়া নিন্দা করেছে। গতকাল বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র বলেছেন যে,”পাকিস্তানি হিংসাত্মক জনতা পাঞ্জাব প্রদেশের অবস্থিত রহিম ইয়ার খানে একটি গণেশ মন্দিরে ব্যাপক তাণ্ডব চালিয়েছে ।

আরও পড়ুন-আগামীকাল থেকে জাতিসংঘের সুরক্ষা পরিষদের নেতৃত্বদান করবে ভারত

সেই সাথে আশপাশের হিন্দুদের বাড়িতেও যথেষ্ট তাণ্ডব চালানো হয়েছে । ক্রমাগত পাকিস্তানে হিন্দু মন্দিরের উপরে আক্রমণ এবং সংখ্যালঘু হিন্দুদের ওপর যথেষ্ট হামলা এবং তাদের হত্যার ঘটনা ঘটে চলেছে।”এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তান পুলিশ জানিয়েছে যে একটি মুসলিম সেমিনারের গ্রন্থাগারের দেওয়ালে একটি হিন্দু ছেলে যার বয়স ৮ বছর সে প্রস্রাব করেছিলো। এই ঘটনায় উত্তেজিত হয়ে পাকিস্তানি মুসলিম জনগণ মন্দিরে ভাঙচুর চালিয়েছে।

আরও পড়ুন-ভারত থেকে বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে রওনা হচ্ছে ২০০ টন অক্সিজেন

এই ঘটনায় যথেষ্ট ক্ষুদ্ধ হয়েছে ভারত। ‌ জানা গিয়েছে , পাকিস্তানের হাইকমিশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কূটনীতিবিদকে তলব করে এই বর্বরোচিত হামলার যথেষ্ট প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত। এবং অদূর ভবিষ্যতে যাতে এই ধরনের ঘটনা না ঘটে, তার জন্য পাকিস্তানকে সতর্ক করেছে ভারত।এদিকে চাপে পড়ে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান টুইট করে লিখেছেন, “রহিম ইয়ার খান জেলায় গণেশ মন্দিরে যেভাবে হামলা করা হয়েছে সেই হামলার আমি কড়া নিন্দা করছি।

আমি পাঞ্জাব প্রদেশের আইজিকে নির্দেশ দিয়েছি যে এই মন্দিরে যারা হামলা করেছে তাদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করতে। পুলিশের যে গাফিলতি হয়েছে তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গৃহীত হবে। ক্ষতিগ্রস্ত এই মন্দিরটি পুনরায় সংস্কার করা হবে।”

Related Articles

Back to top button