বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। মহারাষ্ট্রে ১৫ দিনের জন্য জারি ১৪৪ ধারা

বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। মহারাষ্ট্রে ১৫ দিনের জন্য জারি ১৪৪ ধারা

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাংলার বুকে একুশের ভোট ঘিরে মানুষের উন্মাদনা এতটাই চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে যে আগামী বিপদের আঁচ অনেকেরই কল্পনায় আসছে না। কিন্তু স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা ভয়াবহ বিপর্যয়ের ইঙ্গিত দিয়েছেন। অধীর রঞ্জন চৌধুরী নির্বাচন কমিশনকে চিঠি লিখে অনুরোধ করেছেন একুশের ভোটের এই আবহে কমিশন কড়াভাবে করোনা বিধি-নিষেধ সম্পর্কিত একটি নির্দেশিকা দিক।

দেশে উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে করোনায় আক্রান্তদের সংখ্যা।এবার সংক্রমনের মাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ায় আবার লকডাউনের পথে হাঁটতে চলেছে মহারাষ্ট্র। এই ইঙ্গিত মিলতেই পরিযায়ীরা ফিরে আসছেন মহারাষ্ট্র থেকে। এই পরিস্থিতিতে ১০৬ টি স্পেশাল ট্রেন চালানোর ব্যবস্থা করেছে মধ্য রেলওয়ে। এরপর ট্রেনের সংখ্যা আরো বৃদ্ধি করা হবে বলে জানিয়েছে মধ্য রেলওয়ে।

আরও পড়ুন-“আমি ঘরে ঢুকে যাওয়ার লোক ন‌ই।”- জনসভা থেকে বললেন মুখ্যমন্ত্রী

বিহারের পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফিরিয়ে আনতে পূর্ব মধ্য রেলওয়ে স্পেশাল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পরিযায়ীদের বাড়ি ফেরার ঢল নেমেছে লোকমান্য তিলক টার্মিনাসে। সেখানে দেখা গিয়েছে ব্যাপক ভীড়। লকডাউন যদিও এখনো ঘোষিত হয়নি, কিন্তু বিপদের আঁচ করে আগে থেকেই মহারাষ্ট্র ছেড়ে বাড়ির পথে র‌ওনা দিচ্ছেন পরিযায়ীরা।

এই অবস্থায় আগামী ১৫ দিনের জন্য মহারাষ্ট্রে জারি করা হল ১৪৪ ধারা। শুধুমাত্র ছাড় পাওয়া যাবে জরুরি পরিষেবা গুলিতে। গণপরিবহন চালু থাকবে, এবং লোকাল ট্রেনেও জরুরী কাজের ভিত্তিতে যাতায়াত করা যাবে। আশঙ্কায় তটস্থ হয়ে রয়েছেন মহারাষ্ট্রবাসী।